Begin typing your search above and press return to search.

এপিএসসি কেলেংকারির তদন্ত সম্পূর্ণ করতে আরও তিন মাস সময় চাইল ডিব্ৰুগড় পুলিশ

এপিএসসি কেলেংকারির তদন্ত সম্পূর্ণ করতে আরও তিন মাস সময় চাইল ডিব্ৰুগড় পুলিশ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  7 March 2019 12:20 PM GMT

গুয়াহাটিঃ আসাম পাবলিক সার্ভিস কমিশনে(এপিএসসি)ঘুষ দিয়ে চাকরি কেনা সংক্ৰান্ত কেলেংকারির তদন্ত সম্পূর্ণ করতে না পারার বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে ডিব্ৰুগড় পুলিশ তদন্ত সারতে আর তিন মাস সময় চেয়েছে। ডিব্ৰুগড় পুলিশ এব্যাপারে গত ৫ মার্চ এখানে বিশেষ আদালতে একটি পিটিশন দাখিল করে তদন্তের সময় বাড়ানোর আর্জি জানায়। পিটিশন গ্ৰহণ করে বুধবার কোর্ট বলেছে,এই প্ৰস্তাব সম্পর্কে প্ৰয়োজনীয় নির্দেশিকা ইস্যু করতে আগামি ১২ মার্চের দিনটি ধার্য করা হয়েছে।

ওই পিটিশনে ডিব্ৰুগড় পুলিশ উল্লেখ করেছে,নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ইস্যু নিয়ে রাজ্যে চলা দুমাস ব্যাপী আন্দোলন এপিএসসি কেলেংকারির তদন্তে ব্যাঘাত সৃষ্টির একটি প্ৰধান কারণ। পুলিশ বিশেষ আদালতকে আরও বলেছে,এপিএসসি-র তদন্তকারী অফিসারকে(আইও)বর্তমানে গোলাঘাট জেলায় বদলি করা হয়েছে। সূত্ৰটির মতে,কিছু এপিএসসি সদস্যের অপসারণ সম্পর্কে ডিব্ৰুগড় পুলিশের হাতে থাকা মামলার(নং ৯৩৬/১৬)ব্যাপক সংখ্যক নথি যথাযথভাবে ঠিকঠাক করে পাঠানোর কাজে ব্যস্ত রয়েছেন তদন্তকারী অফিসার। সুপ্ৰিমকোর্ট এই নথিগুলি চেয়েছিল। সূত্ৰটি আরও বলেছে,কয়েকজন অভিযুক্তের প্ৰসিকিউশন সেঙশন রিসিপ্ট না পাওয়া এবং এপিএসসি কার্যালয় থেকে বাজেয়াপ্ত করা কম্পিউটারের ডুপ্লিকেট কপিগুলি পুঙ্খানুপুঙ্খ পরীক্ষার কাজ বাকি থাকায় ও অন্যান্য বেশকিছু কারণে কেলেংকারির তদন্তে ব্যাঘাত জন্মায় বলে পিটিশনে উল্লেখ করা হয়েছে।

Next Story