Top
Begin typing your search above and press return to search.

জল সরবরাহ প্ৰকল্পের প্ৰথম পর্যায় অক্টোবরের মধ্যে চালু করতে জেআইসিএ-কে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্ৰীর

জল সরবরাহ প্ৰকল্পের প্ৰথম পর্যায় অক্টোবরের মধ্যে চালু করতে জেআইসিএ-কে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্ৰীর

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  1 May 2019 1:47 PM GMT

গুয়াহাটিঃ মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল মঙ্গলবার বৃহত্তর গুয়াহাটি জল সরবরাহ প্ৰকল্পের চলতি নির্মাণ কাজের অগ্ৰগতি খতিয়ে দেখলেন। এই প্ৰকল্পটি রূপায়ণের দায়িত্ব রয়েছে জেআইসিএ। তিনি চলতি বছরের অক্টোবরের আগে প্ৰকল্পের প্ৰথম পর্যায় চালু করার জন্য এজেন্সিটিকে নির্দেশ দেন।

রামসা হিলস এবং খারঘুলিতে প্ৰকল্প স্থল পরিদর্শনকালে সোনোয়াল এজেন্সিকে প্ৰকল্পের বাকি থাকা কাজ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সম্পূর্ণ করতে বলেন। গুয়াহাটি উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্ৰী সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্য প্ৰকল্পটি পরিদর্শনকালে মুখ্যমন্ত্ৰীর সঙ্গে ছিলেন। রামসা হিলসে বৃহত্তর জলাধার প্ৰকল্পটির নির্মাণ কাজের অগ্ৰগতি খতিয়ে দেখেন মুখ্যমন্ত্ৰী। প্ৰকল্পটির উচ্চতা ৮১ মিটার এবং প্ৰস্থ ৬১ মিটার। এই প্ৰকল্পে জল ধারণের ক্ষমতা হলো ১.৪ কোটি লিটার। প্ৰকল্পের যে স্থান থেকে জল সংগ্ৰহ করা হবে সেই স্থানটি পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্ৰী।

খারঘুলিতে ব্ৰহ্মপুত্ৰের তীরে নির্মাণ কাজ চলছে প্ৰকল্পটির। সোনোয়াল এই প্ৰকল্প থেকে শীতের সময় যাতে নিরবচ্ছিন্নভাবে জল সরবরাহ করা যায় তার জন্য জিডিডি এবং জেআইসিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন। ব্ৰহ্মপুত্ৰের যে স্থান থেকে জল সংগ্ৰহ করা হবে সেই স্থানটি প্ৰয়োজনে ড্ৰেজিং করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ দেন তিনি। বছরের সব সময় ব্ৰহ্মপুত্ৰের ওই স্থানে যাতে জল থাকে তার জন্যই মুখ্যমন্ত্ৰীর এমন পরামর্শ। এব্যাপারে প্ৰয়োজনে আইআইটি গুয়াহাটির বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিতেও এজেন্সিকে বলেছেন সোনোয়াল। এই প্ৰকল্প পুরোপুরি চালু হলে জল সঞ্চয় করে রাখার দীর্ঘদিনের সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা করেন মুখ্যমন্ত্ৰী।

Next Story