ইন্টারন্যাশনাল

ট্ৰাম্পের বিরোধিতা,সুনামিতে ভারত-পাকিস্তানের লোট-২০১৯ নিয়ে ভাইরাল অন্ধের ভবিষ্যৎবাণী

ভারত-পাকিস্তান

মৃত্যু হয়েছে তাঁর ১৯৯৬ সালেই। তবু প্রতি বছর মৃত্যুর পরপার থেকে ভেসে আসে তাঁর ভবিষ্যৎবাণী। যার মধ্যে বেশ কয়েকটা, যেমন ৯/১১ ধ্বংসকাণ্ড, ব্রেক্সিটের উত্থান, আইএসআইএস-এর হত্যালীলা- মিলে গিয়েছে অক্ষরে অক্ষরে। ফলে, বুলগেরিয়ার অন্ধ ভবিষ্যৎদ্রষ্টা বাবা ভঙ্গা কিছু বললে তা সহজে ফেলে দিতে পারে না বিশ্ব।

কিন্তু ২০১৯ সা নিয়ে যা বলছেন বাবা, তা সত্যি হলে বিপর্যয়ের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে সারা বিশ্বই। খবর মোতাবেকে, ১৪ বছর বয়সে ঝড়ে দৃষ্টিশক্তি হারানোর পর থেকেই ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা পান এই নারী। এর আগে তিনি জানিয়েছিলেন যে ভ্লাদিমির পুতিন তাঁর দেহরক্ষীদ্বারা আক্রান্ত হবেন। সে কথা সত্যি হয়, পুতিনও বাড়িয়ে দেন নিজের নিরাপত্তা। কিন্তু বাবার সাফ সতর্কতা- ২০১৯-এ হয় তো আর নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন না রাশিয়ার এই রাজনীতিক, দেহরক্ষীর হাতই প্রাণ দিতে হবে তাঁকে।

পাশাপাশি, সাফ জানিয়েছেন বাবা- ২০১৯ সালটা মার্কিন দেশনায়ক ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষেও মধুর নয়! তাঁর পরিবার পড়বে গাড়ি দুর্ঘটনায়, রহস্যময় এক অসুখে ব্রেন ট্রমা নিয়ে তিনি শ্রবণশক্তি হারাবেন। এই অসুখই শেষ করে দেবে তাঁর রাজনৈতিক জীবন। তৃতীয় বিশ্বের চিন্তা কিন্তু অন্য কারণে। বাবার বক্তব্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে এক প্রাকৃতিক বিপর্যয়। সম্ভবত সুনামিতে এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশ পুরোপুরি মুছে যাবে। তার মধ্যে শীর্ষ স্থানে রয়েছে ভারত আর পাকিস্তানের নাম! দুই দেশের দ্বন্দ্ব কি তা হলে এ ভাবেই মিটবে? আপনার কী মনে হয়?