Begin typing your search above and press return to search.

বাজপেয়ী বিশ্ব দরবারে বিশাল ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেনঃ জগদীশ মুখি

বাজপেয়ী বিশ্ব দরবারে বিশাল ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেনঃ জগদীশ মুখি

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  17 Aug 2018 1:13 PM GMT

গুয়াহাটিঃ প্ৰাক্তন প্ৰধানমন্ত্ৰী অটল বিহারী বাজপেয়ীর মৃত্যুতে একের পর এক শোকবার্তা আসছে। অসমের রাজ্যপাল জগদীশ মুখি,মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল,প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী প্ৰফুল্ল কুমার মহন্ত এবং আসু সহ অন্যান্যরা গভীর শোক প্ৰকাশ করেছেন। রাজ্যপাল মুখি অটলজিকে একটা বিশাল ব্যক্তিত্ব এবং বলিষ্ঠ জাতীয় কণ্ঠ বলে আখ্যায়িত করেন,যিনি আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক প্ৰেক্ষাপটে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। মুখি বলেন,দেশ একজন পোড়খাওয়া রাজনীতিক ও সবার শ্ৰদ্ধার পাত্ৰ নেতাকে হারাল। প্ৰথম অকংগ্ৰেসি প্ৰধানমন্ত্ৰী হিসেবে তিন তিনবার দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে গেছেন তিনি। পোখরানে পরমাণু বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বিশ্ব দরবারে ভারতের পরমাণু দক্ষতাকে তুলে ধরার বলিষ্ঠ পদক্ষেপ নিয়েছিলেন,যার দৌলতে বিশ্বের পরমাণু ক্লাবে ভারতের প্ৰবেশ ঘটে। মুখি আরও বলেন,তিনি একজন দার্শনিক ও পথ প্ৰদর্শককে হারালেন। ‘বাজপেয়ীকে হারানোর দুঃখ প্ৰকাশের কোনও ভাষায়ই যথেষ্ট নয় আমার কাছে। তবুও মন্ৰপ্ৰাণে চাইবো তাঁর আত্মার চিরশান্তি হোক-বলেন মুখি।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল গভীর শোক প্ৰকাশ করেছেন বাজপেয়ীর মৃত্যুতে। তিনবার তিনি দেশের প্ৰধানমন্ত্ৰী হয়েছেন এবং ছিলেন দেশের একজন শ্ৰদ্ধাশীল রাজনীতিক। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক শোকবার্তায় সোনোয়াল বলেন,বাজপেয়ীর মৃত্যুতে দেশ একজন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন রাজনীতিক,একজন মহান মানবতাবাদীকে হারাল। দলমত নির্বিশেষে সবাই তাঁকে ভালবাসতো। অসম ও উত্তর পূর্বাঞ্চলের প্ৰতি বাজপেয়ীর একটা নরম মনোভাব ছিল। উত্তরপুবের উন্নতির জন্য ডোনার মন্ত্ৰক গঠন করেছিলেন তিনি। বগিবিল সেতুর শিলান্যাস হয়েছিল তাঁর আমলেই। নুমলিগড় শোধনাগার ও নরনারায়ণ সেতু তিনিই দেশবাসীকে উৎসর্গ করেছিলেন। অসম আন্দোলনের প্ৰতি তাঁর নৈতিক সমর্থন স্মরণে থাকবে অসমবাসীর-বলেন সোনোয়াল। মুখ্যমন্ত্ৰী প্ৰয়াত নেতার বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করেন।

প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী প্ৰফুল্ল কুমার মহন্তও বাজপেয়ীর মৃত্যুতে গভীর দুঃখ প্ৰকাশ করেছেন। মহন্ত বলেন,সকালে তিনি এইমসে গিয়ে বাজপেয়ীকে দেখে এসেছিলেন। মহন্ত বলেন,অসমের মানুষের সঙ্গে বাজপেয়ীর ছিল সখ্যতা আসুর দায়িত্বে এবং মুখ্যমন্ত্ৰী থাকাকালে বাজপেয়ীর ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্য পেয়েছিলেন তিনি।

আসুর উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল কুমার ভট্টাচার্য,সভাপতি দীপাঙ্ক কুমার নাথ ও সাধারণ সম্পাদক লুরিনজ্যোতি গগৈ এক যৌথ বিবৃতিতে বাজপেয়ীর প্ৰয়াণে শোক প্ৰকাশ করেছেন। অসম আন্দোলনের সময়ও বাজপেয়ী অসমের মানুষের পাশেই ছিলেন-বলেন আসু নেতারা।

Next Story