ব্ৰেকিং নিউজ

‘বিমানে জঙ্গি রয়েছে’ বন্ধুকে হোয়াটস অ্যাপ যুবকের,একেমন মস্করা!

হোয়াটস অ্যাপ

গুয়াহাটিঃ বিমানে জঙ্গি রয়েছে বলে বন্ধুকে হোয়াটস অ্যাপে বার্তা পাঠিয়ে যাত্ৰীদের মধ্যে রীতিমতো এক আতঙ্কময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করে এক তরুণ আরোহী। ঘটনাটি ঘটে আজ সকালে কলকাতার নেতাজি সুভাষচন্দ্ৰ বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। জেট এয়ারওয়েজের ৯ডব্লিউ৪৭২ বিমানটি মুম্বইয়ের উদ্দেশে আকাশে ওড়ার আগে যাত্ৰীরা নিজেদের আসনে বসে পড়ার পরই পোদ্দার নামের ওই যুবকটি একই বিমানের অন্য একটি আসনে বসা তার এক বন্ধুকে ‘বিমানে সন্ত্ৰাসবাদী রয়েছে’ লিখে হোয়াটস অ্যাপে ম্যাসেজ পাঠায়।

পোদ্দার নামের যুবকটি নিজের আসনে বসে রুমাল দিয়ে নিজের মুখ ঢেকে নিয়ে বন্ধুটিকে ওই বার্তাটি পাঠায়। ওই বার্তায় পোদ্দার লিখেছে ‘টেরোরিস্ট অন ফ্লাইট,আই ডেসট্ৰয় ওম্যান হার্টস’। যুবকটির পাশের আসনে বসা অন্য এক আরোহীর যুবকটির হাবভাব দেখে সন্দেহ হয় এবং তিনি চুপসারে হোয়াটস অ্যাপে পাঠানো বার্তাটি পড়ে ফেলেন। এরপরই সময় নষ্ট না করে সহযাত্ৰীটি বিমানের ক্যাবিন ক্ৰুকে ঘটনার কথা ঠারেঠোরে জানান। ক্যাবিন ক্ৰুরা পাইলটকে বিষয়টি জানালে পাইলট এয়ার লাইন্সের নিরাপত্তা বিভাগকে সবকিছু খুলে বলেন। এয়ারলাইন্স-এর নিরাপত্তা রক্ষীরা সঙ্গে সঙ্গে এসে পোদ্দারকে বিমান থেকে নামিয়ে নেন। বিমানের ওড়ানও কিছুসময়ের জন্য স্থগিত রাখা হয়।

যুবকের লটবহরও বিমান থেকে নামিয়ে তল্লাশি করা হলে তাতে কোনও সন্দেহজনক জিনিস পাওয়া যায়নি। ২১ বছর বয়সী যুবক পোদ্দারকে জেরা করা হলে সে জানায় বন্ধুর সঙ্গে সে নিছকই মস্করা করছিল। পরে কলকাতা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় যুবকটিকে। বিমানে যাত্ৰী ছিলেন ১৬০ জন। এই মস্করাকাণ্ডের জন্য নির্ধারিত সময়ের ১ ঘণ্টা ১০ মিনিট পর বিমানটি মুম্বইয়ের উদ্দেশে আকাশে ওড়ে।