Begin typing your search above and press return to search.

বিমুদ্ৰাকরণের পক্ষে সাফাই গাইলেন অর্থমন্ত্ৰী জেটলি

বিমুদ্ৰাকরণের পক্ষে সাফাই গাইলেন অর্থমন্ত্ৰী জেটলি

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  8 Nov 2018 1:25 PM GMT

গুয়াহাটিঃ দেশে বিমুদ্ৰাকরণের আজ দ্বিতীয় বার্ষিকী পূর্ণ হলো। বিমুদ্ৰাকরণের ফলে দেশের ভাল ও মন্দ দিকগুলি নিয়ে হিসেবে নিকেশ করার এটাই চূড়ান্ত সময়। হঠাৎ করে বিমুদ্ৰাকরণের সিদ্ধান্ত ঘোষিত হওয়ায় দেশ জুড়ে যে সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছিল সে সম্পর্কে কেন্দ্ৰীয় অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি ওই প্ৰস্তাবের পক্ষেই সাফাই গেয়েছেন। তাঁর মতে,জনস্বার্থেই বিমুদ্ৰাকরণের পদক্ষেপ নেওয়াটা প্ৰয়োজন ছিল।

এক লিখিত বিবৃতিতে জেটলি বলেন,‘ভারতের অর্থনীতি ছিল নগদ প্ৰভাবিত । এই ব্যবস্থা রশিদ বিহীন কেশ পেমেণ্ট থেকে ডিজিটেল লেনদেনের প্ৰতি জনগণকে ঝুঁকতে সাহায্য করেছে। তাছাড়া এই পদক্ষেপ ব্যাংকিং ব্যবস্থা পরিচ্ছন্ন করতে ও কর ফাঁকি ঠেকানোর ক্ষেত্ৰেও একটা কার্যকরী পদক্ষেপ বলা যায়। বিমুদ্ৰাকরণ ক্যাশ হোল্ডারদের সমস্ত টাকা ব্যাংকে জমা দিতে বাধ্য করেছে-বলেন তিনি। জেটলি আরও বলেন রুপে কার্ড এখন পয়েণ্ট অফ সেল(পিওএস)এবং ই-কমার্স উভয় ক্ষেত্ৰেই ব্যবহৃত হচ্ছে। এই ব্যবস্থার ফলে লেনদেনের পরিমাণ বিমুদ্ৰাকরণের আগে যেখানে ৮০০ কোটি টাকা ছিল সেখানে ২০১৮-র সেপ্টেম্বরে পিওএস বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৫,৭৩০ কোটি টাকায় এবং ই-কমার্সের ক্ষেত্ৰে ৩০০ কোটি থেকে বেড়ে হয়েছে ২,৭০০ বিলিয়ন। বিমুদ্ৰাকরণের ফলে ব্যক্তিগত আয়কর সংগ্ৰহের পরিমাণও বৃদ্ধি পেয়েছে বলে উল্লেখ করেন জেটলি।

Next Story