Begin typing your search above and press return to search.

মহাকাশ বিজ্ঞানে আগ্ৰহী হতে যুবক,ছাত্ৰদের প্ৰতি আহ্বান মোদির

মহাকাশ বিজ্ঞানে আগ্ৰহী হতে যুবক,ছাত্ৰদের প্ৰতি আহ্বান মোদির

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  29 July 2019 10:11 AM GMT

নয়াদিল্লিঃ প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি দেশের যুবক ও ছাত্ৰদের আগামি মাসে মহাকাশ বিজ্ঞান গবেষণা বিষয়ে অনুষ্ঠেয় অনলাইন ক্যুইজে অংশগ্ৰহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন। রবিবার তাঁর মাসিক রেডিও ‘মনকি বাত’ অনুষ্ঠানে ওই আহ্বান জানান তিনি। আগামি ১ আগস্ট থেকে মাই গভর্নমেণ্ট.ইন(my gov.in)ওয়েবসাইটে ক্যুইজের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। ক্যুইজে যারা বিজয়ী হবে তারা সেপ্টেম্বর মাসে সরকারি খরচে শ্ৰীহরিকোটা মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্ৰ পরিদর্শনের সুযোগ পাবে। চন্দ্ৰযান-২ পেলোডসের চাঁদে অবতরণের দৃশ্য সরাসরি দেখার সু্যোগ দেওয়া ক্যুইজে বিজয়ীদের।

মাসিক বেতার অনুষ্ঠান ‘মন কি বাত’-এ রাষ্ট্ৰের উদ্দেশে বক্তব্য রেখে প্ৰধানমন্ত্ৰী মোদি চন্দ্ৰযান-২-এর সফল উৎক্ষেপণের জন্য ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা প্ৰতিষ্ঠানের(ইসরো)বিজ্ঞানীদের প্ৰশংসায় ভরিয়ে দেন। তিনি আরও উল্লেখ করেন মার্চে অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইল উৎক্ষেপণ করে এক অসামান্য সাফল্যের নজির রেখেছে ভারত।

দেশে জল সংরক্ষণ সম্পর্কে মেঘালয়ের তারিফ করেন প্ৰধানমন্ত্ৰী। দেশের মধ্যে মেঘালয়ই হচ্ছে প্ৰথম রাজ্য যারা জল সংরক্ষণে একটা নিজস্ব নীতি প্ৰস্তুত করেছে। স্বচ্ছ ভারত অভিযানের প্ৰসঙ্গ তুলে প্ৰধানমন্ত্ৰী বলেন,ইঞ্জিনিয়ার যোগেশ সাইনি এবং তাঁর দল দিল্লির পথঘাট চিত্ৰকলার মাধ্যমে সৌন্দর্য বর্ধনে অসীম অবদান রেখেছেন।

সম্প্ৰতি মস্কোতে অনুষ্ঠিত বিশ্ব স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপে দশটি ভারতীয় শিশু পদক জিতে দেশের মান বাড়িয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীরের প্ৰসঙ্গ উত্থাপন করে প্ৰধানমন্ত্ৰী মোদি বলেন,দেশের অন্যান্য অঞ্চলে উন্নয়নের যে জোয়ার এসেছে কাশ্মীরের সাধারণ মানুষ ওই রাজ্যের উন্নয়নে যোগ দিয়ে এগিয়ে যেতে অত্যন্ত আগ্ৰহী। মোদি কাশ্মীরে ‘ব্যাক টু ভিলেজেস’ কর্মসূচি রূপা্যণের প্ৰস্তাব রেখেছিলেন যা কাশ্মীর উপত্যকায় গ্ৰহণ করা হয়েছে। এই কর্মসূচির মাধ্যমে সরকারি কর্মীরা উপত্যকার দূর দূরান্তে থাকা প্ৰত্যেক এবং প্ৰতিটি গ্ৰামে যেতে পারছেন। ‘এই কর্মসূচি অনলাইনে মনিটরিং করার সুপারিশ করা হয়েছিল। এই কর্মসূচি থেকে এটা পরিষ্কার হয়ে গেছে যে রাজ্যের মূলস্ৰোতের উন্নয়নে অংশ নিতে কাশ্মীরের মানুষ কতটা মুখিয়ে আছেন’-বলেন মোদি।

সরকারি কর্মকর্তারা কাশ্মীরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে স্থানীয় মানুষের মতামত নিচ্ছেন। ব্যাক টু ভিলেজ অভিযান শুরু হয়েছে গত জুন মাস থেকে।

সোপিয়ান,পুলওয়ামা,কুলগাম এবং অনন্তনাগে গ্ৰাম সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবং প্ৰতিটি সভায় মানুষ কাশ্মীরের বিকাশের মূল স্ৰোতে সামিল হতে আগ্ৰহ দেখাচ্ছেন। বিভিন্ন সভা-সমিতিতে কাশ্মীরিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্ৰহণে এটা প্ৰমাণিত যে,বিকাশের মূলস্ৰোতে অংশ নিতে কাশ্মীরি মানুষ কতটা আগ্ৰহী। সপ্তাহ ব্যাপী এই সব কর্মসূচিতে রাজ্যের ব্যাপক সংখ্যক নাগরিক অংশগ্ৰহণ করেছেন। গ্ৰামবাসীরা ওই সব সভায় স্বাস্থ্য,সাক্ষরতা,জল,বিদ্যুৎ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। কাশ্মীরিরা অতিথি পরায়ণ বলেও উল্লেখ করেন মোদি। প্ৰধানমন্ত্ৰী বলেন,৩ লক্ষের বেশি অমরনাথ তীর্থযাত্ৰী এবার নির্বিঘ্নে যাত্ৰা করেছেন। তাদের কোনও বাধার মুখে পড়ার খবর পাওয়া যায়নি। এটা একটা রেকর্ড। অমরনাথ যাত্ৰা সফল হওয়ায় কাশ্মীরে ভেঙে পড়া পর্যটন ব্যবস্থা আবার জোরদার হবে বলে মনে করেন প্ৰধানমন্ত্ৰী।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ সংসদে গরহাজির মন্ত্ৰী,সাংসদের বিরুদ্ধে বেজায় ক্ষুব্ধ প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি

Next Story