Uncategorized

অসমে ডাইনি হত্যা নিষিদ্ধকরণ,প্ৰতিরোধ ও সুরক্ষা বিল’২০১৫তে রাষ্ট্ৰপতির অনুমোদন

অবশেষে অসমে ডাইনি সন্দেহে হত্যা নিষিদ্ধ হলো। অসমে ডাইনি হত্যা(নিষিদ্ধকরণ,প্ৰতিরোধ ও সুরক্ষা)সংক্ৰান্ত বিল ২০১৫ রাষ্ট্ৰপতির অনুমোদন পেলো। অসমে ডাইনি সন্দেহে হত্যার ঘটনা আখছার ঘটছে। দেশের অন্যান্য রাজ্য ঝাড়খণ্ড,ছত্তিশগড়,বিহার,মহারাষ্ট্ৰ ও রাজস্থান ইত্যাদিতেও এই কুপ্ৰথার চল রয়েছে।২০০০ সালের মাঝামাঝি থেকে বিভিন্ন সংগঠন এই সমস্যার বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলে।রিপোর্টে প্ৰকাশ,২০০১-১৭ এর মধ্যে ১৯৩টি ডাইনি হত্যার ঘটনা ঘটেছে।এসময়ে নথিভুক্ত মামলার সংখ্যা ২০২।৯৩১ জনকে গ্ৰেপ্তার করা হয়েছে।রাজ্যের ডিজিপি কুলধর শইকিয়া এই প্ৰথার বিরুদ্ধে লড়তে ‘প্ৰজেক্ট প্ৰহরী’ ব্যবস্থা চালু করেছেন।রাজ্যের প্ৰায় ১০০টি গ্ৰামকে এই প্ৰকল্পের আওতায় আনা হয়েছে।অন্ধবিশ্বাসের বশে এধরনের হত্যা বন্ধে আইনটির যথাযথ রূপায়ণ পুলিশের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ-বলেন ডিজিপি।আইনটি সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য পুলিশ ও সামাজিক সংগঠনগুলি কাজ করছে।গোয়ালপাড়ার বীরুবালা রাভা ডাইনি হত্যার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্ৰভাবে আওয়াজ ওঠাচ্ছেন।বীরুবালা রাভা আশা করছেন,এই আইনটি এজাতীয় অপরাধ দমনে বিশেষ ভূমিকা নেবে।আইন অনুযায়ী ডাইনি হত্যায় জড়িতদের ৭ বছরের জেল এবং ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা হতে পারে।