ন্যাশনাল

আসানসোলে বিজেপি প্ৰার্থী বাবুল সুপ্ৰিয়র গাড়িতে ভাঙচুর

বিজেপি প্ৰার্থী বাবুল সুপ্ৰিয়

গুয়াহাটিঃ পশ্চিমবঙ্গের আটটি লোকসভা আসনে আজ চতুর্থ দফায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হ্য়। রাজ্যে লোকসভার মোট আসন ৪২টি। আসানসোলে আজ নির্বাচন চলাকালে বিজেপি প্ৰার্থী বাবুল সুপ্ৰিয়-র গাড়িতে হামলা চালায় কিছু উন্মত্ত মানুষ। নটি রাজ্যের ৭২টি লোকসভা কেন্দ্ৰে ভোটগ্ৰহণ করা হয় আজ।
বিজেপি প্ৰার্থী বাবুল সুপ্ৰিয়র গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে সকাল ৯টা নাগাদ। সংগীত জগত থেকে রাজনীতির অঙ্গনে আসা বাবুল অভিযোগ করেন,পশ্চিমবঙ্গে শাসক দল তৃণমূল কংগ্ৰেস নোংরা খেলা খেলছে। সুপ্ৰিয় বলেন,’তারা আমাকে একটা নির্দিষ্ট জায়গায় আটকে রাখতে চেয়েছিল। আমাকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেতে হয়েছে। এমন কি ভোট কেন্দ্ৰের কাছে থাকা বিল্ডিংগুলিতে বসবাসকারী মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্ৰয়োগ করতে পারেননি’।
বাবুল সুপ্ৰিয় আসানসোল লোকসভা কেন্দ্ৰে তৃণমূল কংগ্ৰেস প্ৰার্থী তথা প্ৰাক্তন অভিনেত্ৰী মুনমুন সেনের সঙ্গে প্ৰতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়েছেন।
২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বাবুল এই কেন্দ্ৰে তৃণমূলের দোলা সেনকে ৭০,৪৮০ ভোটে হারিয়েছিলেন এবং ওই বছরই মুনমুন সেন বাঁকুরা লোকসভা আসনে জয়ী হয়েছিলেন।
প্ৰথম তিনদফা নির্বাচনেও পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে হিংসাশ্ৰয়ী ঘটনা ঘটেছে। তৃতীয় দফা নির্বাচনের সময় রাজনৈতিক সংঘর্ষে এক ব্যক্তির মৃত্যুও হয়। দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের সময় ইসলামপুরে সিপিআই(এম)প্ৰার্থী মহম্মদ সেলিমের গাড়িতে হামলা চালানো হয়েছিল।
বাবুল আরও অভিযোগ করেন ভোটারদের ভোট দিতে দেওয়া হচ্ছে না। তিনি বলেন,তাদের লড়াই হচ্ছে গণতন্ত্ৰ প্ৰতিষ্ঠার। একটা গণতান্ত্ৰিক দেশে এধরনের ঘটনা সত্যিই লজ্জাজনক-বলেন বাবুল সুপ্ৰিয়। তিনি আরও বলেন,হামলার রিপোর্ট যেখান থেকে পেয়েছেন সেখানেই তিনি গেছেন সঙ্গে কেন্দ্ৰীয় বাহিনীকে নিয়ে। ‘মানুষ আমাকে বলেছেন,আমাদের সেন্ট্ৰাল ফোর্স দিন তাহলে ভোট দেবো’-অভিযোগ করেন বাবুল সুপ্ৰিয়। ভোট কেন্দ্ৰের বাইরে তৃণমূল কংগ্ৰেস ও বিজেপি সমর্থকদের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্ৰণ করতে পুলিশ ব্যাটন চার্জ করে।