Top
Begin typing your search above and press return to search.

উগ্ৰতারা মন্দিরে চুরি কাণ্ডের মূল মাথার হদিশ নেই,জেরার জন্য ৫ সন্দেহভাজনকে আটক করেছে পুলিশ

উগ্ৰতারা মন্দিরে চুরি কাণ্ডের মূল মাথার হদিশ নেই,জেরার জন্য ৫ সন্দেহভাজনকে আটক করেছে পুলিশ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  19 Nov 2018 11:37 AM GMT

গুয়াহাটিঃ মহানগরীর উগ্ৰতারা দেবালয়ে ভগবতীর অষ্টধাতুর বিগ্ৰহ এবং মায়ের অলঙ্কার ওনগদ অর্থ চুরির চাঞ্চল্যকর ঘটনায় পুলিশ পাঁচ সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে জেরার জন্য আটক করেছে যদিও চুরিকাণ্ডের মূল মাথাকে এখনও জালে পুরতে পারেনি।

মন্দিরের সিসি টিভির ফুটেজে চোরের ছবি থাকার স্পষ্ট সাক্ষ্যপ্ৰমাণ থাকা সত্ত্বেও পুলিশ এখনও চোরের কোনও হদিশ খোঁজে বার করতে সক্ষম হয়নি। এরফলে পুলিশের যোগ্যতা নিয়েও একাংশ মানুষ প্ৰশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। রবিবার পর্যন্ত পুলিশ সন্দেহের বশে পাঁচজনকে জেরার জন্য আটক করেছে।

উল্লেখ্য,গুয়াহাটির পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে উগ্ৰতারা মন্দিরে চুরি কাণ্ডের পরিপ্ৰেক্ষিতে নাগরিক কমিটির সহযোগে পুলিশের অপরাধ শাখা,স্পেশাল ব্ৰাঞ্চ,ফৌজদারি তদন্ত বিভাগ,মহানগর পুলিশকে নিয়ে একটি তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছে। এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে যে এই নিয়ে উগ্ৰতারা দেবালয়ে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার চুরির ঘটনা ঘটলো।

পুলিশ সন্দেহ করছে এবারের চুরিকাণ্ডে নেশাসক্ত কিছু লোক সম্ভবত জড়িত। চুরির ঘটনা সম্পর্কে পুলিশ ইতিমধ্যেই একটি মামলা(নং২৭১/১৮ ইউ/এস ৪৫৭/৩৮০ আইপিসি)নথিভুক্ত করছে।

গুয়াহাটি শহরের প্ৰাণকেন্দ্ৰ উজান বাজার এলাকায় থাকা শতাব্দী পুরনো শক্তিপীঠ উগ্ৰতারা দেবালয় থেকে গত শুক্ৰবার শেষ রাতে মন্দিরের অষ্টধাতুর মূল্যবান বিগ্ৰহটি চুরি যায়। চোর মায়ের গলার সোনার নেকলেস,অন্যান্য অলঙ্কার ও নগদ অর্থ লুট করে নিয়ে যায়।

সিসি টিভির ফুটেজে দেখা গেছে চোরের দলে চার জন ছিল। তারা খুব সহজেই মন্দিরের সমস্ত মূল্যবান সামগ্ৰী হাতিয়ে অবলীলায় কেটে পড়ে। মন্দিরে চুরির ঘটনায় আশেপাশের মানুষ গভীর দুঃখ প্ৰকাশ করেছেন। কারণ এই মন্দিরের বিগ্ৰহের প্ৰতি তাদের বিশ্বাস,অনুভূতি জড়িয়ে আছে। তারা অবিলম্বে বিগ্ৰহটি উদ্ধার করার দাবিও জানিয়েছেন।

Next Story