Begin typing your search above and press return to search.

এনআরসি নবায়নে ব্যাঘাত সৃষ্টির চেষ্টা করছে দিশপুরঃ আসু

এনআরসি নবায়নে ব্যাঘাত সৃষ্টির চেষ্টা করছে দিশপুরঃ আসু

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  2 March 2019 12:20 PM GMT

গুয়াহাটিঃ অবৈধ বাংলাদেশি মুক্ত একটা রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)প্ৰস্তুতের ক্ষেত্ৰে দিশপুরের সদিচ্ছার অভাব রয়েছে বলেই মনে করে সারা অসম ছাত্ৰ সংস্থা(আসু)। অনআরসি নবায়নের কাজে নিযুক্ত ১৭ জন অতিরিক্ত জেলাশসককে(এডিসি)রাজ্য সরকার বদলির নির্দেশ দেওয়ার পরিপ্ৰেক্ষিতে প্ৰতিক্ৰিয়া ব্যক্ত করতে গিয়েই আসু এই বিবৃতি দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্ৰচার মাধ্যমের উদ্দেশে দেওয়া এক বিবৃতিতে আসুর সভাপতি দীপাঙ্ক কুমার নাথ এবং সাধারণ সম্পাদক লুরিন জ্যোতি গগৈ বলেন,রাজ্যে এনআরসি নবায়নের কাজ সুষ্ঠুভাবে চালিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্ৰে ব্যাঘাত সৃষ্টির চেষ্টা করছে সরকার। এনআরসি-র কাজে নিয়োজিত এডিসিদের এসময়ে বদলি করার ব্যাপারে রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্ৰশ্ন তুলেছে আসু। সুপ্ৰিমকোর্ট ইতিমধ্যেই নয়াদিল্লি এবং দিশপুরকে নির্দেশ দিয়ে রেখেছিল যে এসময়ে এনআরসি-র কাজে জড়িত কোনও আধিকারিককে বদলি না করতে। চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশ না হওয়া পর্যন্ত এনআরসির কাজে নিয়োজিত কোনও আধিকারিককে বদলি করা চলবে না বলে পরিষ্কার করে জানিয়ে দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। আসু নেতারা বলেন এনআরসিতে দাবি ও ওজর আপত্তি নিষ্পত্তির জন্য যখন শুনানির গুরুত্বপূর্ণ পর্যায় চলছে সেইসময়ই এদের বদলি করা হয়েছে। ‘দিশপুর এধরনের বদলি এবারই প্ৰথম করেনি। এর আগেও তারা এনআরসি-র আধিকারিকদের বদলি করে ভুল করেছিল’-বলা হয়েছে বিবৃতিতে।

‘এটা এখন স্ফটিকের মতোই পরিষ্কার হয়ে গেছে যে দিশপুর রাজ্যে অবৈধ বাংলাদেশি মুক্ত একটা নির্ভুল এনআরসি প্ৰকাশ করতে চাইছে না। সরকারকে এই প্ৰবণতা পরিহার করতে হবে’-মন্তব্য করেন আসু নেতারা।

চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশ না হওয়া পর্যন্ত দিশপুরকে এই সব আধিকারিকদের নিজেদের পদে বহাল রাখতেই হবে-উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে।

Next Story
সংবাদ শিরোনাম