এপিএসসি কেলেংকারিতে আরও কিছু মাথা জড়িত থাকার ইঙ্গিত দিলেন রাজ্য পুলিশ প্ৰধান কুলধর শইকিয়া

এপিএসসি কেলেংকারিতে আরও কিছু মাথা জড়িত থাকার ইঙ্গিত দিলেন রাজ্য পুলিশ প্ৰধান কুলধর শইকিয়া

গুয়াহাটিঃ রাজ্যের পুলিশ প্ৰধান(ডিজিপি)কুলধর শইকিয়া টাকা দিয়ে চাকরি কেনার আসাম পাবলিক সার্ভিস কমিশনের(এপিএসসি)কেলেংকারিতে কিছু বরিষ্ঠ কর্তা সহ আরও কিছু মাথা জড়িত থাকার ইঙ্গিত দিয়েছেন। রবিবার গুয়াহাটিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় পুলিশ প্ৰধান বলেন,‘এটা চার্জশিটের একটা অংশ মাত্ৰ। এধরনের আরও চার্জশিট আসছে। প্ৰয়োজনে এই কেলেংকারিতে আরও কেউ জড়িত থাকার প্ৰমাণ যদি আমরা পাই তাহলে তাদেরও তদন্তের আওতায় আনা হবে’।

এপিএসসি কেলেংকারির দুই অভিযুক্ত কেলেংকারিতে জড়িত কিছু আধিকারিকের জামিনের জন্য একজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তার স্ত্ৰীর হাতে এক কোটি টাকা ধরিয়ে দেওয়া নিয়ে তদন্তকারী অফিসার যে তথ্য ফাঁস করেছেন তার পরিপ্ৰেক্ষিতে শইকিয়ার এই ইঙ্গিত যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। তদন্তকারী অফিসারের রিপোর্টে এটা স্ফটিকের মতো পরিষ্কার যে অভিযুক্ত সুরজিত চৌধুরীই অভিযুক্ত অন্যান্য কয়েকজন আধিকারিকের জামিনের পথ পরিষ্কার করতে বিচার বিভাগীয় কর্তাকে ঘুষ দেওয়ার জন্য তাদের(অভিযুক্তদের)অভিভাবকদের কাছ থেকে ওই টাকা সংগ্ৰহ করেছিলেন। অভিযুক্ত চৌধুরী ওই এক কোটি টাকা আইনজীবী শৈলেন্দ্ৰ কুমার শর্মা বরুয়াকে হস্তান্তর করেছিলেন বিচার বিভাগীয় অফিসারকে দেওয়ার জন্য। ওই টাকা ওদালগুড়িতে বিচার বিভাগীয় অফিসারের স্ত্ৰীর হাতে দেওয়া হয়েছিল বলে রিপোর্টে প্ৰকাশ।

Related Stories

No stories found.
logo
Sentinel Assam- Bengali
bengali.sentinelassam.com