Begin typing your search above and press return to search.

কলকাতা পুলিশের ভূমিকা যুক্তরাষ্ট্ৰীয় ব্যবস্থায় হুমকি স্বরূপঃ রাজনাথ

কলকাতা পুলিশের ভূমিকা যুক্তরাষ্ট্ৰীয় ব্যবস্থায় হুমকি স্বরূপঃ রাজনাথ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  5 Feb 2019 12:06 PM GMT

নয়াদিল্লিঃ সারদা চিটফান্ড কেলেংকারি নিয়ে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করতে যাওয়া সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে কলকাতা পুলিশ যে আচরণ করছে,স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং তা যুক্তরাষ্ট্ৰীয় ব্যবস্থায় হুমকি ব্যক্ত করেন। রাজনাথ সোমবার বলেন,কেন্দ্ৰীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই-র আধিকারিকদের কর্তব্য পালনে কলকাতা পুলিশের বাধা দেওয়ার ঘটনা দেশের যুক্তরাষ্ট্ৰীয় রাজনৈতিক ব্যবস্থার ক্ষেত্ৰে রীতিমতো হুমকি স্বরূপ।

লোকসভায় বিবৃতি দিতে গিয়ে মন্ত্ৰী রাজনাথ বলেন,তাঁর এটা বলতে কোনও দ্বিধা নেই যে রবিবার কলকাতায় যে ঘটনা ঘটেছে তা ওই রাজ্যে সাংবিধানিক সংকটেরই ইঙ্গিত দিচ্ছে। তিনি বলেন,কেন্দ্ৰীয় তদন্ত ব্যুরো(সিবিআই)বহু কোটি টাকার চিটফান্ড কেলেংকারির তদন্ত করছে এবং এব্যাপারে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করতে গিয়েছিল তারা। ‘কিন্তু রবিবার আইনগত কর্তব্য পালনে যাওয়া সিবিআই আধিকারিকদের আটকে দেয় কলকাতা পুলিশ। এমন ঘটনা অভূতপূর্ব’-জিরো আওয়ারে একথা বলেন রাজনাথ।

তিনি বলেন,সুপ্ৰিমকোর্টের নির্দেশেই সিবিআই আধিকারিকরা সারদা কাণ্ডের তদন্ত করতে ওই রাজ্যে গিয়েছিলেন। সিবিআই কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে বার বার তলব করা সত্ত্বেও তিনি কোনও সাড়া দেননি। সিবিআইকে সহযোগিতা করেননি। তাই সিবিআই ওই অফিসারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়ে পড়ে। ‘ওই কেলেংকারিতে রাজনীতিক ও কিছু প্ৰভাবশালী ব্যক্তির মধ্যে অশুভ আঁতাত থাকার অভিযোগ রয়েছে এবং তদন্তকারী সংস্থাটি সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশেই ঘটনার তদন্ত করছিল। তদন্তকারী সংস্থা ও রাজ্য পুলিশের মধ্যে যে ধস্তাধস্তি হয়েছে তা শুধু বেআইনিই নয়,দুর্ভাগ্যজনকও বটে। এই ঘটনা যুক্তরাষ্ট্ৰীয় এবং রাজনৈতিক ব্যবস্থায় মারাত্মক হুমকি বলে উল্লেখ করেন তিনি।

কেন্দ্ৰীয় মন্ত্ৰী বলেন,আইন প্ৰণয়নকারী সংস্থাকে তাদের কর্তব্যপালনে যদি বাধা দেওয়া হয় তাহলে অরাজকতার সৃষ্টি হবে।

‘রাজ্যগুলির অধিকারের প্ৰতি আমাদের শ্ৰদ্ধা রয়েছে। সরকারগুলি যাতে আইনি পথে পরিচালিত হয় তা সুনিশ্চিত করতে সংবিধান কেন্দ্ৰকে অধিকার দিয়েছে। ‘তাই আমার এটা বলতে কোনও দ্বিধা নেই যে রবিবার বাংলায় যা ঘটেছে তা সাংবিধানিক সংকটেরই নজির’-বলেন রাজনাথ।

Next Story