Begin typing your search above and press return to search.

কোকরাঝাড়ে মনোনয়ন দাখিল করলেন প্ৰমীলা,নবকুমার,ধীরাজ

কোকরাঝাড়ে মনোনয়ন দাখিল করলেন প্ৰমীলা,নবকুমার,ধীরাজ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  3 April 2019 7:05 AM GMT

কোকরাঝাড়ঃ ৫ নং কোকরাঝাড়(সংরক্ষিত)লোকসভা কেন্দ্ৰের নির্বাচনের জন্য প্ৰমীলা রানি ব্ৰহ্ম(বিপিএফ),নবকুমার শরনিয়া(নির্দল)এবং ধীরাজ ডেকা(সিপিআইএম)এই তিনজন প্ৰার্থী মঙ্গলবার তাঁদের মনোনয়নপত্ৰ দাখিল করেছেন। ভোটার্স পার্টি ইন্টারন্যাশনাল(ভিপিআই)-এর প্ৰার্থী রাজেশ নার্জারি সোমবারই তাঁর মনোনয়নপত্ৰ জমা দিয়েছেন।

প্ৰমীলা রানি ব্ৰহ্ম ব্যাপক সংখ্যক সমর্থক নিয়ে পথারঘাট থেকে মিছিল করে এসে কোকরাঝাড়ে রিটার্নিং অফিসার পার্থপ্ৰতিম মজুমদারের হাতে তাঁর মনোনয়নপত্ৰ তুলে দেন। বিপিএফ প্ৰধান হাগ্ৰামা মহিলারি,বিটিসির ডেপুটি চিফ খাম্পা বরগয়ারি,রাজ্যসভার সাংসদ বিশ্বজিৎ দৈমারি,বিধায়ক রবিরাম নার্জারি,ইএমএস রাজীব ব্ৰহ্ম এবং মৃত্যুঞ্জয় নার্জারি এবং দলের অন্যান্য বরিষ্ঠ নেতারা তাঁর সঙ্গে ছিলেন।

এদিকে নির্দল প্ৰার্থী নবকুমার শরনিয়া ডিমলগাঁও থেকে মিছিল করে এসে তাঁর মনোনয়ন জমা দেন। তাঁকে সমর্থন দিয়েছে সম্মিলিত জনগোষ্ঠীয় ঐক্য মঞ্চ(এসজেএএম)এবং অ-বোড়ো গোষ্ঠী। মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন একেআরএসইউ-এর উপদেষ্টা অতুল রায়,এসজেএএম-এর সভাপতি ব্ৰজেন মহন্ত এবং অন্যান্যরা।

অন্যদিকে সিপিআই(এম)প্ৰার্থী ধীরাজ ডেকা দলীয় কর্মী ও সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে তাঁর মনোনয়নপত্ৰ দাখিল করেন এদিন।

বিপিএফ প্ৰার্থী তথা রাজ্যের মন্ত্ৰী প্ৰমীলা পরে সাংবাদিকদের বলেন,দলের স্ট্ৰ্যাটিজি অনু্যায়ী তিনি কাজ করবেন। তাছাড়া মানুষের আশা আকাঙ্খা পূরণের চেষ্টা করাই হবে তাঁর লক্ষ্য। ভোটে ব্যাপক ব্যবধানে জিতবেন বলে আশা প্ৰকাশ করে প্ৰমীলা আরও বলেন,ক্ষমতায় এলে তিনি অসমের ছয় জনগোষ্ঠীর উপজাতির মর্যাদা দানের ইস্যুটি সংসদে উত্থাপন করবেন।

এদিন বিপিএফ সভাপতি হাগ্ৰামা মহিলারি বলেন,এবারের এই লড়াই শুধু বিপিএফ এবং অবোড়ো সুরক্ষা সমিতির মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। লড়াই হবে বিপিএফ এবং আবসু এবং এনডিএফবি(পি)সমর্থিত ইউপিপিএল প্ৰার্থীর মধ্যে। তিনি বলেন,উন্নয়নই হচ্ছে দলের মূল ইস্তাহার।

ওদিকে নবকুমার শরনিয়া সাংবাদিকদের বলেছেন,তিনি ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে জিতবেন। বলেন,অঞ্চলটির অবোড়োরা হাগ্ৰামা নেতৃত্বাধীন বিপিএফকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চাইছেন। শুধু তাই নয়,অনেক বোড়ো মানুষও চাইছেন একটা পরিবর্তন। শরনিয়া আরও বলেন,বোড়োল্যান্ড রাজ্য গঠনের দাবিটি তিনি উত্থাপন করবেন। তিনি বলেন,এই আসন ধরে রাখতে পারলে বিটিসি-র বিকাশের প্ৰসঙ্গটিও তিনি তুলবেন।

Next Story