খেলা

গুয়াহাটিতে ভোগেশ্বর বরুয়া ক্ৰীড়া স্কুলের শিলান্যাস করলেন মুখ্যমন্ত্ৰী

ক্ৰীড়া স্কুলের শিলান্যাস

গুয়াহাটিঃ মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল সোমবার গুয়াহাটির সরুসজাই ক্ৰীড়া চত্বরে ভোগেশ্বর বরুয়া রাজ্য স্পোর্টস স্কুলের শিলান্যাস করেন। রাজ্যে এধরনের স্কুল হবে এটাই প্ৰথম। মোট ২০ বিঘা জমিতে স্কুলটি স্থাপন করা হবে। অ্যাথলেটিক্স,বক্সিং,ফুটবল,ভারোত্তোলন,তিরন্দাজি এবং টায়ে কোয়ান্ড এই ছটি ইভেন্টে প্ৰ্যাকটিক্যাল ও থিওরিটিক্যাল প্ৰশিক্ষণ দানের ব্যবস্থা থাকবে এই বিদ্যালয়ে।

এই একই আনুষ্ঠানে সোনোয়াল এদিন মুখ্যমন্ত্ৰীর ক্ৰীড়া পুরস্কার ২০১৯ রাজ্যের ১৬ জন প্ৰতিশ্ৰুতিবান খেলোয়াড়ের হাতে তুলে দেন। এই ১৬ জন খেলোয়াড় রাজ্যে বিভিন্ন খেলাধুলার ইভেন্টে নিজেদের প্ৰতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। পুরস্কার হিসেবে কৃতী খেলোয়াড়দের দেওয়া হয়েছে ১.৫ লক্ষ টাকা এবং একটি করে মানপত্ৰ। মুখ্যমন্ত্ৰী এদিন রাজ্যের ১১ জন ক্ৰীড়া ব্যক্তিত্বকে সংবর্ধনাও জানান। এই সব খেলোয়াড়রা ‘খেলো ইন্ডিয়া ইয়ুথ গেমস’ এ পদক জিতেছিলেন।

মুখ্যমন্ত্ৰী সেরা ক্ৰীড়া সংগঠকের পুরস্কার তুলে দেন জয়ন্ত বোড়োর হাতে।

অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে সোনোয়াল বলেন,খেলাধুলা হচ্ছে এমন একটা হাতিয়ার যার মাধ্যমে সমাজে শান্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব। খেলাধুলার ক্ষেত্ৰে অসীম সম্ভাবনার কথা ব্যক্ত করে সোনোয়াল ঘোষণা করেন খেলাধুলার সঙ্গে সংস্কৃতি ও শিক্ষার সমন্বয় ঘটাতে সরকার একটা নীতি প্ৰস্তুত করবে। এমনটাঘলে প্ৰশিক্ষণ নেওয়া ক্ৰীড়া ব্যক্তিত্বরা শিক্ষা ও নৈতিক মূলবোধ থেকে কখনো বঞ্চিত হবেন না। তিনি আরও বলেন,খেলাধুলার গুণগত উৎকর্ষ সাধনে রাজ্য সরকার ডিব্ৰুগড় জেলার চাবুয়ার কাছে একটি ক্ৰীড়া বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কোকরাঝাড়ে স্পোর্টস কলেজ এবং গুয়াহাটিতে ক্ৰীড়া বিদ্যালয় হলে রাজ্যের ক্ৰীড়া মেধাগুলিকে সঠিক দিশায় এগিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করেন। পর্বতারোহী তরুণ শইকিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য মুখ্যমন্ত্ৰী এদিন আসাম স্পোর্টস ডেভেলপমেন্ট ফান্ড থেকে ৩ লক্ষ টাকার একটি চেক শইকিয়ার পরিবারের হাতে তুলে দেন। পর্বতারোহী শইকিয়া বর্তমানে কিডনির রোগে ভুগছেন।