রাজ্যের খবর

গুয়াহাটি রেল স্টেশন থেকে ৮ বাংলাদেশি আটক

বাংলাদেশি আটক

গুয়াহাটিঃ ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তে দালালরা যে এখনও সক্ৰিয় তারই জ্বলন্ত প্ৰমাণ পাওয়া গেল গত ২২ এপ্ৰিল আটজন বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করার ঘটনায়। সরকারি রেলওয়ে পুলিশের(জিআরপি)কর্মকর্তা এবং রাজ্য পুলিশের সীমান্তে শাখা সোমবার সাত সকালে গুয়াহাটি রেল স্টেশন থেকে ওই আট বাংলাদেশিকে আটক করে। এদের কাছ থেকে বাংলাদেশি সিম সহ কয়েকটি মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

ধৃত ৮ বাংলাদেশির স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে জিআরপি এবং সীমান্ত পুলিশ সূত্ৰ জানাচ্ছে,এরা চলতি বছরের ২০ এপ্ৰিল দালালদের সাহা্য্যে বাংলাদেশ সীমান্ত পেরিয়ে ত্ৰিপুরায় ঢোকে। ২২ এপ্ৰিল এই আট বাংলাদেশিকে গুয়াহাটি রেলস্টেশন থেকে আটক করা হয়,চেন্নাই এক্সপ্ৰেসে(ডাউন)ওঠার জন্য অপেক্ষায় থাকাকালে। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো,এই আট বাংলাদেশি নাগরিকের কাছে আধার কার্ডও ছিল। কিভাবে তারা আধার সংগ্ৰহ করলো?

এদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে জিআরপি ও সীমান্ত পুলিশ আরও বলেছে,দালালরাই এদের হাতে আধার কার্ড তুলে দিয়েছে এবং এরজন্য প্ৰতি কার্ড বাবদ তারা ২০-২৫ হাজার টাকা নিয়েছে। তবে পুলিশ এই আধার কার্ডগুলো জাল বলে সন্দেহ করছে। সূত্ৰটি আরও বলেছে,এই সব বাংলাদেশিরা দালালের সাহা্য্যে অবৈধভাবে ভারতে ঢুকেছে ভাগ্য বদলানোর তাড়নায়। এদের লক্ষ্য ছিল বড় শহরে গিয়ে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা। জিআরপি এই ঘটনায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৬৮/৪৭১ ধারায় ৬৯/১৯ নম্বরে একটি মামলা নথিভুক্ত করেছে।

ধৃতরা বাংলাদেশের চট্টগ্ৰাম জেলার ভোজ পুলিশ স্টেশন এলাকার বাসিন্দা। এদের আক্ৰম হুসেন(১৯),দিলওয়ার হুসেন(১৯),রুবেল হুসেন(১৯),কমল হুসেন(২০),মনির হুসেন(২১),আবু তাহের(১৮),সবুজ হুসেন(১৯)এবং মনির হুসেন(১৮)নামে শনাক্ত করা হয়েছে।