ব্ৰেকিং নিউজ

জাতীয় নাগরিক পঞ্জির পূর্ণাঙ্গ খসড়া প্ৰকাশিত,কঠিন পরীক্ষায় উতরে গেলেন ২,৮৯,৮৩,৬৭৭ জন

নাগরিক
Left: NRC State Coordinator Prateek Hajela, Centre: Registrar General of India Sailesh, Right: Joint Secretary, MHA (NE)- Satyendra Garg

গুয়াহাটিঃ জাতীয় নাগরিক পঞ্জির(এনআরসি)চূড়ান্ত খসড়া সোমবার প্ৰকাশিত হওয়ায় সীমান্ত পার থেকে বাংলাদেশিদের ঢালাও অনুপ্ৰবেশ রোখার একটা পাকাপোক্ত সমাধানের পথ প্ৰশস্ত হলো। সেই সঙ্গে অনুপ্ৰবেশের কবল থেকে স্থানীয় মানুষের অস্তিত্ব ও অধিকার রক্ষায় কয়েক দশকের পুরনো ইস্যুটিরও একটা কিনারা করবে নাগরিক পঞ্জির এই দস্তাবেজ। এনআরসি-র রাজ্য সমন্বয়ক প্ৰতীক হাজেলা সোমবার সকাল ১০ টায় এখানে এনআরসি কার্যালয়ে ২,৮৯,৮৩,৬৭৭ জন আবেদনকারীর নাম সহ পূর্ণাঙ্গ খসড়াটি প্ৰকাশ করেন।

খসড়া প্ৰকাশের লগ্নে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্ৰার জেলারেল অফ ইন্ডিয়া শৈলেশ,স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰকের যুগ্ম সচিব(উত্তরপূর্ব)সত্যেন্দ্ৰ গার্গ। এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য ২০১৫তে মোট ৩,২৯,৯১,৩৮৪ জন ব্যক্তি ৬৮,৩১,৩৩০টি আবেদনপত্ৰ দাখিল করেছিলেন। মোট আবেদনকারী ৩,২৯,৯১,৩৮৪ জনের মধ্যে সম্পূর্ণ খসড়ায় অন্তর্ভুক্ত হয়নি ৪০,০৭,৭০৭ জনের নাম। ৩৭,৫৯,৭০৭ জনের নাম খসড়ায় অন্তর্ভুক্তির জন্য উপযুক্ত বিবেচিত হয়নি।

২.৪৮ লক্ষ ‘ডি’ ভোটার এবং তাদের সন্তানসন্ততি ও বিদেশি ট্ৰাইবুনালে মামলা থাকাদের নাম হোল্ডে রাখা হয়েছে। কেন্দ্ৰীয় সরকার এনআরসি প্ৰকল্পের জন্য মোট ১,২২০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। ‘দেশ এবং অসমের ক্ষেত্ৰে সোমবার ছিল একটা ঐতিহাসিক দিন। সুপ্ৰিমকোর্টের সরাসরি তত্ত্বাবধানে প্ৰস্তুত করা খসড়াটি পরিচ্ছন্ন অবাধ ও উদ্দেশ্যপূর্ণ হয়েছে-বলেন আরজিআই শৈলেশ।