Top
Begin typing your search above and press return to search.

তিনসুকিয়ার পেঙেরিতে আরও দুটি কট্টর আলফার আত্মসমর্পণ

তিনসুকিয়ার পেঙেরিতে আরও দুটি কট্টর আলফার আত্মসমর্পণ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  1 April 2019 12:49 PM GMT

ডিগবয়ঃ তিনসুকিয়া জেলায় গত ১৮ মার্চ সাত কট্টর আলফা জঙ্গির আত্মসমর্পণের ঘটনার কটা দিন পার হতেই রবিবার সংগঠনের আরও দুই ক্যাডার পেঙেরিতে পুলিশের কাছে তাদের অস্ত্ৰ সমর্পণ করেছে।

অ্যাডিশনাল এসপি আসিফ আহমেদ,মার্ঘেরিটার এসডিপিও দেবব্ৰত মরান এবং ভারতীয় সেনার নিরাপত্তা শাখার জওয়ানরা ওই এলাকায় যৌথ তল্লাশি অভিযান চালানোর সময় আলফার এই দুই জঙ্গি আত্মসমর্পণ করে। একজন পুলিশ কর্তা এখবর জানিয়েছেন।

যে দুই আলফা ক্যাডার আত্মসমর্পণ করেছে তারা হলো পুনাকন চেতিয়া ওরফে রজনী অসম(২৩)এবং জিন্টু সোনোয়াল ওরফে তুতুল অসম। পুনাকন পেঙেরি থানার অধীন টিকিরি মরানগাঁও অঞ্চলের বাসিন্দা নবীন চেতিয়ার পুত্ৰ। জিন্টু তিনসুকিয়া জেলার কাকোপথার থানা এলাকার বরমাইথং-এর বাসিন্দা বিপুল সোনোয়ালের ছেলে। পুনাকন ২০১৫ সালে নিষিদ্ধ সংগঠনটিতে যোগ দিয়েছিল। ২০১৬ সালে আলফায় যোগ দেয় জিন্টু।

আত্মসমর্পণকারী দুই জঙ্গির হেফাজত থেকে একে ৪৭ এর ১৮টি তাজা গুলি,এম-১৬-র ৯২ রাউন্ড গুলি,একটি নয় এমএম পিস্তল,৯-এমএম-এর ১১ রাউন্ড গোলাবারুদ,একটি এইচই গ্ৰেনেড উদ্ধার করা হয়েছে। পর পর জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের ঘটনা আলফা শিবিরে বড় ধরনের আঘাত বলে মনে করা হচ্ছে। মায়ানমারের বিশেষ কমবেট আর্মি মায়ানমারে জঙ্গি সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে সম্প্ৰতি অভিযান চালায়। এই অভিযানের ফলে আলফা,এনএসসিএন(কে)এবং এনডিএফপি জঙ্গিরা বিভ্ৰান্ত হয়ে আত্মসমর্পণে বাধ্য হয়েছে বলে রিপোর্টে প্ৰকাশ।

Next Story