ইন্টারন্যাশনাল

দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেন নওয়াজ শরিফ

নওয়াজ শরিফ

আরও এক দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেন নওয়াজ শরিফ৷ অল-আজিজিয়া স্টিল মিল দুর্নীতি মামলায় প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে সাত বছর কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল পাক আদালত৷ তবে ফ্ল্যাগশিপ ইনভেস্টমেন্ট দুর্নীতি মামলায় তাঁকে ছাড় দিয়েছেন বিচারক৷

গত সপ্তাহে এই দুর্নীতি মামলার রায় স্থগিত রাখে বিচারপতি মহম্মদ আরশাদ মালিক৷ তবে সোমবারের মধ্যে এই দুই মামলার রায় তাঁকে দিতেই হত৷ কেনান সুপ্রিম কোর্টের স্পষ্ট নির্দেশ ছিল সোমবারের মধ্যে দুটি মামলার রায় দিতেই হবে৷ সেই মতো তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ৬৮ বছরের নওয়াজের সাজা ঘোষণা করেন বিচারক৷ রায় ঘোষণার আগে শরিফ জানান, মাথা নোওয়ানোর মতো কাজ তিনি করেননি৷ সৎ ভাবে দেশের জন্য কাজ করে গিয়েছি৷

শরিফের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো(ন্যাব) শরিফের বিরুদ্ধে অ্যাভেনফিল্ড প্রোপারটিজ, ফ্ল্যাগশিপ ইনভেস্টমেন্ট ও অল-আজিজিয়া এই তিনটি দুর্নীতি মামলার তদন্ত শুরু করে৷ সুপ্রিম কোর্ট তদন্তকারীকে নির্দেশ দেয় ছ’মাসের মধ্যে মামলা গোটাতে হবে৷ তবে তার চেয়ে বেশি সময় নিয়ে নেয় ন্যাব৷চলতি বছর জুলাই মাসে অ্যাভেনফিল্ড প্রোপারটিজ মামলায় শরিফের ১১ বছরের জেল হয়৷ তাঁর মেয়ে মারিয়ম ও জামাই মহম্মদ সাফদারের যথাক্রমে আট বছর ও এক বছরের জেল হয়৷ শরিফের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে দুর্নীতির টাকায় লন্ডনে চারটি ফ্ল্যাট কেনার৷ তবে সেপ্টেম্বর মাসে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তিনজনকে জামিনে মুক্তি দেয়৷ এর আগে পানামা পেপারস দুর্নীতি মামলায় ২০১৭ সালে দোষী সাব্যস্ত হন নওয়াজ৷ তার জেরে খোয়াতে হয় প্রধানমন্ত্রীর পদ৷