সংবাদ শিরোনাম

দ্বিতীয় দফার ভোটে লড়াইয়ের ময়দানে ৫০ প্ৰার্থী

দ্বিতীয় দফার ভোট
representative image

গুয়াহাটিঃ রাজ্যে ১৮ এপ্ৰিল অনুষ্ঠেয় পাঁচটি কেন্দ্ৰে দ্বিতীয় দফার লোকসভা নির্বাচনের জন্য মোট ৫০ জন প্ৰার্থী লড়াইয়ের ময়দানে রয়েছেন। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে এই পাঁচ আসনের জন্য মনোনয়নপত্ৰ দাখিল করেছিলেন মোট ৬০ জন প্ৰার্থী। গত ২৭ মার্চ মনোনয়নপত্ৰ পরীক্ষার সময় চারটি মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায়। শুক্ৰবার মনোনয়নপত্ৰ প্ৰত্যাহারের অন্তিম দিনে আর ৬ জন মনোনয়ন প্ৰত্যাহার করে নেন।

যে পাঁচটি কেন্দ্ৰে ১৮ এপ্ৰিল ভোট হচ্ছে সেগুলি হলো করিমগঞ্জ,শিলচর,স্বশাসিত জেলা ডিফু,মঙ্গলদৈ এবং নগাঁও। করিমগঞ্জে নির্বাচনী লড়াইয়ে ১৪ জন প্ৰার্থী,শিলচরে ১৩,স্বশাসিত জেলায় ৫,মঙ্গলদৈয়ে ১১ এবং নগাঁওয়ে সাতজন রয়েছেন। এরমধ্যে চারটি কেন্দ্ৰে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ও কংগ্ৰেসের মধ্যে সরাসরি লড়াই হবে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে করিমগঞ্জ কেন্দ্ৰে বিজেপি,এআইইউডিএফ এং কংগ্ৰেসের মধ্যে ত্ৰিমুখী লড়াই হতে পারে। শিলচর আসনে কংগ্ৰেসের সুস্মিতা দেব ও বিজেপির রাজদীপ রায়ের মধ্যে সরাসরি লড়াই হবে। স্বশাসিত জেলা ডিফুতে বিজেপির হরেন সিং বে এবং কংগ্ৰেসের বর্তমান সাংসদ বীরেন সিং ইংতির মধ্যেই লড়াই জমবে। ওদিকে মঙ্গলদৈ লোকসভা কেন্দ্ৰে কংগ্ৰেসের বর্তমান রাজ্যসভা সাংসদ ভুবনেশ্বর কলিতা ও বিজেপির দিলীপ শইকিয়ার মধ্যে তুমুল লড়াই হবে বলে আঁচ করা হচ্ছে। এই কেন্দ্ৰে ইউনাইটেড পিপলস পার্টি লিবারেল(ইউপিপিএল)প্ৰার্থী হিসেবে প্ৰদীপ কুমার দৈমারি নির্বাচনী ময়দানে রয়েছেন যদিও তবে লড়াইয়ে তিনি কতটা পাল্লা দিতে পারবেন তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

নগাঁও কেন্দ্ৰে বিজেপির রূপক শর্মা ও কংগ্ৰেসের প্ৰদ্যুৎ বরদলৈর মধ্যে লড়াই হবে সরাসরি। করিমগঞ্জ আসনে বিজেপি প্ৰার্থী কৃপানাথ মাল্লা,এআইইউডিএফ-এর বর্তমান সাংসদ রাধেশ্যাম বিশ্বাস ও কংগ্ৰেসের স্বরূপ দাসের মধ্যে যে ত্ৰিমুখী লড়াই হবে তা একেবারেই স্পষ্ট।