Begin typing your search above and press return to search.

নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে গুয়াহাটিতে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ৰদের প্ৰতিবাদ মিছিল

নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে গুয়াহাটিতে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ৰদের প্ৰতিবাদ মিছিল

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  23 Jan 2019 10:00 AM GMT

গুয়াহাটিঃ নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ২০১৯-এর প্ৰতিবাদে গুয়াহাটি ও আশপাশ অঞ্চলের অগ্ৰণী মহাবিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকশো ছাত্ৰছাত্ৰী মঙ্গলবার মহানগরীতে এক বিশাল মিছিল বের করে। গুয়াহাটি ক্লাবের রোটারি পয়েণ্ট থেকে এই দীর্ঘ মিছিল এগিয়ে যায় কামরূপের(মেট্ৰো)জেলাশাসকের কার্যালয় অবধি। মিছিলকারীদের মুখে স্লোগান ছিল আমাদের ওপর নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল চাপিয়ে টুপি পরাবার চেষ্টা করবেন না।

কটন বিশ্ববিদ্যালয়,গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয়,গুয়াহাটি কলেজ,বিবরুয়া কলেজ,ভেটেরিনারি সায়েন্স কলেজ,জেবি ল কলেজ,গুয়াহাটি সিটি কলেজ,গভর্নমেণ্ট আয়ুর্বেদিক কলেজ ইত্যাদির কয়েকশো ছাত্ৰ এই মিছিলে অংশ নেন। তাঁরা নাগরিকত্ব বিল সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্ৰীর ভূমিকাকে আধুনিক যুগের বদন বলে আখ্যায়িত করেন। মিছিলকারীরা সমস্বরে শ্লোগান দেন ‘জীবনে মরনে আমি চিরদিন অসমিয়া’(অর্থাৎ জীবিত ও মৃত অবস্থায় আমরা চিরদিন অসমিয়া। ‘বিজেপির প্ৰকৃত স্বরূপ আমরা বুঝে গেছি’,‘চুপ থাকুন,মিথ্যেবাদী’ ইত্যাদি শ্লোগান দেন মিছিলকারীরা।

ছাত্ৰ সমাজের তরফ থেকে সাতদফা দাবি সংবলিত একটি স্মারকপত্ৰ প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির উদ্দেশে কামরূপের(মেট্ৰো)জেলাশাসকের হাতে অর্পণ করা হয়। মিছিল বের করার আগে স্টুডেণ্টেস ফ্ৰেটারনিটি একটি সমাবেশেরও আয়োজন করে। ওই সমাবেশে বক্তব্য রেখে বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী উদয়াদিত্য ভরালি বলেন,‘এই বিল অসমের খিলঞ্জিয়া মানুষের অস্তিত্ব চরম সংকটের মুখে ঠেলে দেবে। সংকটের এই মুহূর্তে ছাত্ৰসমাজ কি নীরব দর্শক হয়ে বসে থাকতে পারে? তাঁদের গুরু দ্বায়িত্ব কাঁধে তুলে নিতেই হবে।

আরও একজন বুদ্ধিজীবী দীনেশ বৈশ্য বলেন,অসম বিরোধী এই বিলের প্ৰতিবাদে ছাত্ৰ সমাজ যেভাবে আওয়াজ তুলেছে তার তারিফ করতেই হয়।

Next Story