Begin typing your search above and press return to search.

নাগরিকত্ব বিল বাতিল,ইনার লাইন পারমিটের দাবিতে একগুচ্ছ কর্মসূচি অজাযুছাপ-এর

নাগরিকত্ব বিল বাতিল,ইনার লাইন পারমিটের দাবিতে একগুচ্ছ কর্মসূচি অজাযুছাপ-এর

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  22 Jan 2019 9:54 AM GMT

গুয়াহাটিঃ অসমের ভূমিপুত্ৰদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার বিষয়টি হুমকির মুখে পড়ায় অসম জাতীয়বাদী যুব ছাত্ৰ পরিষদ(এজেওয়াইসিপি)আগামি প্ৰজাতন্ত্ৰ দিবসের দিন থেকে নতুন করে একগুচ্ছ আন্দোলন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। সোমবার গুয়াহাটিতে এজেওয়াইসিপির(অজা্যুছাপ)সাধারণ সম্পাদক পলাশ চাংমাই বলেন,‘নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ২০১৯(পূর্বের ২০১৬)অবিলম্বে বাতিল করার দাবির প্ৰতি সমর্থন,ইনারলাইন পারমিট(আইএলপি)চালু করা এবং রাজ্যে দ্বিনাগরিকত্বের ব্যবস্থা করার দাবিতেই আমাদের এই আন্দোলন কর্মসূচি। এব্যাপারে রাজ্যের জনমনে সচেতনতাবোধ গড়ে তোলা একান্তই অপরিহার্য’।

‘বিজেপি সরকার গণতন্ত্ৰকে হত্যা ও সংবিধান ধ্বংসের যে ষড়যন্ত্ৰ করছে তার বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে আসছে গণরাজ্য দিবসের দিন থেকে আমরা পদযাত্ৰা(মিছিল)শুরু করছি। আন্দোলন কর্মসূচির অংশ হিসেবে অজা্যুছাপ আগামি ৩০ জানুয়ারি সারা রাজ্যে প্ৰতিবাদ ধর্মঘট পালন করবে। এরপর ৭ ফেব্ৰুয়ারি পালন করা হবে রেল রোকো আন্দোলন। ওই দিন রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে ট্ৰেন অবরোধ করা হবে। এভাবেই চলবে আমাদের আন্দোলন’।

চাংমাই আরও বলেন,নাগরিকত্ব বিল বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত সংগঠনগুলির এব্যাপারে কোনও সমাধানে পৌঁছতে সরকারের সঙ্গে আলোচনায় যাওয়ার কোনও কারণ নেই। কারণ অসম বিরোধী ওই বিলটি প্ৰত্যাহার না করা পর্যন্ত এর কোনও সমাধানে পৌঁছনো যাবে না। তাই সরকারের সঙ্গে এনিয়ে কোনও আলোচনাই সদর্থক,ফলপ্ৰসূ হবে না বলে চাংমাই মনে করেন। তিনি বলেন,‘অসমের ভূমিপুত্ৰদের চূড়ান্ত রক্ষাকবচের ব্যবস্থা করতে ইনারলাইন পারমিট(আইএলপি)অপরিহার্য। এই ব্যবস্থা চালু করার জন্য আমরা লাগাতার আন্দোলন শুরু করতে যাচ্ছি’। নাগরিকত্ব বিল সম্পর্কে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়ালের ভূমিকারও সমালোচনা করেছে অজাযুছাপ।

অসম গণ পরিষদের(অগপ)প্ৰতি আবেদন জানিয়ে চাংমাই বলেন,এব্যাপারে আঞ্চলিক দলটিরই অগ্ৰণী ভূমিকা নেওয়া উচিত। তাহলে সব বিরোধী দল জোটবদ্ধ হয়ে বিধানসভায় বিলের বিরুদ্ধে জোর আওয়াজ তুলতে পারবে।

Next Story