Top
Begin typing your search above and press return to search.

নাগরিক বিল প্ৰত্যাহার ও পিআরসি-র দাবিতে মরান ছাত্ৰ সংস্থার অর্থনৈতিক অবরোধ

নাগরিক বিল প্ৰত্যাহার ও পিআরসি-র দাবিতে মরান ছাত্ৰ সংস্থার অর্থনৈতিক অবরোধ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  21 Jan 2019 1:37 PM GMT

ডিগবয়ঃ সারা মরান ছাত্ৰ সংস্থার(এএমএসইউ)বিভিন্ন আঞ্চলিক কমিটি অরুণাচল প্ৰদেশের নামসাই জেলার লেকাং ইউনিটের সহযোগিতায় তাদের দুদফা দাবি নিয়ে অসম-অরুণাচল সীমান্তের বিভিন্ন স্থানে অনির্দিষ্টকালের জন্য অর্থনৈতিক অবরোধ শুরু করেছে। ৫২ নম্বর জাতীয় সড়কের কাকোপথার-নামসাই রোড এবং বরদুমসা সহ বিভিন্ন স্থানে আর্থনৈতিক অবরোধ শুরু করে তারা।

নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ২০১৬ রদ করা এবং নামসাই জেলার লেকাং সার্কলে প্ৰকৃত স্থানীয় ভূমিপুত্ৰদের স্থায়ী বাসিন্দার প্ৰমাণপত্ৰ(পিআরসি)ইস্যু করার দাবিতেই রবিবার সকাল থেকে এই অর্থনৈতিক অবরোধ শুরু করে তারা। বরদুমসা ও কাকোপথার সহ বিভিন্ন স্থানে মরান ছাত্ৰ সংস্থার সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক শাখাগুলির এই অর্থনৈতিক অবরোধের ফলে তিনসুকিয়া থেকে তেল,ঘরোয়া ক্ষেত্ৰে ব্যবহৃত গ্যাস এবং অন্যান্য প্ৰয়োজনীয় সামগ্ৰীর পরিবহণ সহ বাণিজ্যিক যানবাহনের চলাচল দারুণভাবে ব্যাহত হয়। ‘তিনসুকিয়া থেকে সমস্ত ধরনের বাণিজ্যিক যানবাহন চলাচল আমরা আটকে দিই। ফলে তিনসুকিয়া থেকে নিত্য পণ্য পরিবহণ সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ে’-একথা জানান এএমএসইউ-র লেকাং আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি বিহুবর মরান।

এদিকে এএমএসইউ০র লেকাং কমিটির সাধারন সম্পাদক মনোজ কুমার মরান নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ২০১৬ অবিলম্বে রদ করার দাবি জানান। পড়শি নামসাই জেলার লেকাং সার্কলে বসবাসকারী প্ৰকৃত মরানদের স্থায়ী বাসিন্দার প্ৰমাণপত্ৰ(পিআরসি)দেওয়ার দীর্ঘদিনের প্ৰতিশ্ৰুতি কার্যকরী না করায় অরুণাচল প্ৰদেশ সরকারের সমালোচনা করেন তিনি।

মাকুম,তিনসুকিয়া এবং কাকোপথারে মরান ছাত্ৰ সংগঠনের সদস্যরা এদিন শ্লোগান দেন ‘নো পিআরসি নো রেস্ট’। তারা নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলেরও বিরোধিতা করে। অবৈধ প্ৰব্ৰজনের কবল থেকে গোটা উত্তর পূর্বাঞ্চলকে রক্ষা করারও আওয়াজ তোলে তারা। স্থানীয় মরানদের স্থায়ী আবাসিকের প্ৰমাণপত্ৰ(পিআরসি)ইস্যু করার ক্ষেত্ৰে গড়িমসির জন্য অরুণাচল সরকারেরও কঠোর সমালোচনা করে তারা।

Next Story