Begin typing your search above and press return to search.

নাগা ফ্ৰেমওয়র্ক চুক্তির বিষয়বস্তু কেন্দ্ৰ খোলসা না করায় উদ্বেগ ক্ৰোমের

নাগা ফ্ৰেমওয়র্ক চুক্তির বিষয়বস্তু কেন্দ্ৰ খোলসা না করায় উদ্বেগ ক্ৰোমের

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  10 Aug 2018 6:08 PM GMT

গুয়াহাটিঃ ‘সাম্প্ৰতিককালে স্বাক্ষরিত নাগা ফ্ৰেমওয়র্ক চুক্তির বিষয়বস্তু কেন্দ্ৰ খোলসা না করায় সন্দেহ ক্ৰমেই দানা বাঁধছে। আমাদের পড়শি রাজ্যগুলিও বিষয়টি নিয়ে সমভাবে উদ্বিগ্ন। আমি সততার সঙ্গে বলতে চাই যে,এটা নাগারা নয়,কেন্দ্ৰীয় সরকারই নাগা ফ্ৰেমওয়র্ক চুক্তির বিষয়বস্তু খোলসা করছে না’-একথা বলেন নাগা পিপলস মুভমেণ্ট ফর হিউম্যান রাইটসের(এনপিএমএইচআর)সেক্ৰেটারি জেনারেল নেইনগুলো ক্ৰোম।

বৃহস্পতিবার গুয়াহাটির আইটিএ কমপ্লেক্সে ইন্টারন্যাশনাল ডে অফ দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্ডিজেনাস পিপলস উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশে ক্ৰোম মুখ্য অতিথি হিসেবে ভাষণ দিচ্ছিলেন। ফ্ৰেমওয়র্ক চুক্তির অনিশ্চয়তা সম্পর্কে উদ্বেগ প্ৰকাশ করে ক্ৰো বলেন,আমরা দৃঢ়তার সঙ্গে বিশ্বাস করি আজ অথবা কাল ভাল অথবা মন্দ কিছু একটা ঘটতে চলেছে।

চুক্তির বিষয়বস্তু প্ৰকাশে অত্যধিক বিলম্ব ও গড়িমসির জন্য নাগা সমাজে হতাশা ক্ৰমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমন কি তরুণ প্ৰজন্মও অস্থির হয়ে উঠেছে। নাগাদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি হচ্ছে। ভারত সরকার আলোচনা দীর্ঘায়িত করার চেষ্টা করছে। প্ৰবীন নাগা রাজনৈতিক নেতারা এক এক করে মারা যাক কেন্দ্ৰ তারই অপেক্ষা করছে’-বলেন ক্ৰোম। তিনি বলেন,বেঁচে থাকার জন্য ৭০ বছরের বেশি সময় ধরে নাগারা লড়াই করে আসছে।

মানবাধিকার কমিটি সদস্য আরও বলেন,দীর্ঘ ২১ বছর রাজনৈতিক আলোচনার পর দেরিতে হলেও ভারত সরকার নাগাদের মর্ম উপলব্ধি করে ফ্ৰেমওয়ার্ক চুক্তিটি করেছে। যুদ্ধ বিরতি নাগা সমাজে কিছুটা শান্তি আনলেও কেন্দ্ৰকে চুক্তির বিষয়বস্তু প্ৰকাশে জোর দেন তিনি। ক্ৰোম আরও বলেন,পরিবেশ,পরিস্থিতি দিনদিনই পাল্টাচ্ছে। বহুজাতিকো কম্পানিগুলির হাত থেকে আমরা আমাদের জমি রক্ষা করতে হবে। এব্যাপারে সম্মিলিতভাবে লড়ার জন্য এই অঞ্চলের সংগঠনগুলির প্ৰতি তিনি আহ্বান জানান।

Next Story