Top
Begin typing your search above and press return to search.

নির্বাচন কমিশন বিজেপির হাতের পুতুলঃ অভিযোগ রিপুনের

নির্বাচন কমিশন বিজেপির হাতের পুতুলঃ অভিযোগ রিপুনের

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  25 April 2019 1:07 PM GMT

গুয়াহাটিঃ অসম প্ৰদেশ কংগ্ৰেস কমিটির(এপিসিসি)সভাপতি রিপুন বরা বলেন,নির্বাচন কমিশন(ইসি)এখন ভারতীয় জনতা পার্টির(বিজেপি)হাতের পুতুলে পরিণত হয়েছে।

একইসঙ্গে বরা বিজেপি-র রাষ্ট্ৰীয় সভাপতি অমিত শাহরও নিন্দা করেছেন জাতীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)নিয়ে মন্তব্য করার জন্য। এই ইস্যুতে সুপ্ৰিমকোর্টের একতরফা মামলার পোষকতা করেন তিনি।

বরা বলেন,রাজ্যে সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্ৰেস ৮ থেকে ১০টি আসনে জিতবে। বুধবার মহানগরীর রাজীব ভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করছিলেন বরা। ‘নির্বাচন কমিশনের(ইসি)বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করে বরা জোরের সঙ্গে বলেন,ইসি বিজেপি-র হাতের পুতুলে পরিণত হয়েছে’। তিনি অভিযোগ করেন,বিজেপি-র নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘন করা নিয়ে কংগ্ৰেস নালিশ জানালেও ইসি বধির ভূমিকা নেয় এবং আচরণ বিধি ভঙ্গ করা সম্পর্কে ওই দলের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি ইসি। বিজেপির বিরুদ্ধে খোলাখুলিভাবে গণতান্ত্ৰিক এবং সাংবিধানিক বিধি লঙ্ঘন করার আভিযোগ এনে ওই দলের কঠোর সমালোচনা করেন বরা। তিনি বলেন,‘এসব দেখেও ইসি চোখ বুজে ছিল’। তিনি বলেন আমরা কেন্দ্ৰ,রাজ্য নির্বাচন কমিশন ও অসমের মুখ্য নির্বাচন অফিসারেরই(সিইও)তীব্ৰ নিন্দা করছি’-বলেন রিপুন।

নির্বাচনী ফলাফল সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বরা বলেন,কংগ্ৰেস রাজ্যের মানুষের অকুণ্ঠ সমর্থন পেয়েছে। দল ৮ থেকে ১০ আসনে জিতবে। ব্যাপক সংখ্যক মানুষ ভোটদানে এগিয়ে আসায় এটা আঁচ করা যায় যে মানুষ পরিবর্তন চাইছেন। নির্বাচনের সময় কংগ্ৰেসের পক্ষে জন সমর্থনের একটা চোরাস্ৰোত বইতে দেখা গেছে এবং মানুষ একটা স্পষ্ট ধারণা নিয়েই নিজেদের ভোটাধিকার প্ৰয়োগ করেছেন।

বরা বলেন,এবার কোনও মোদি হাওয়া বইতে দেখা যায়নি এবং খোদ মোদিই এব্যাপারে সচেতন রয়েছেন,যা তাঁর শারীরিক ভাষা থেকেই বোঝা যায়। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল রূপায়ণের পর এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়া সম্পূর্ণ করা হবে বলে অমিত শাহ যে মন্তব্য করেছেন তার কড়া সমালোচনা করেন বরা। কংগ্ৰেস সভাপতি বলেন,‘শাহ যে মন্তব্য করেছেন তা অগণতান্ত্ৰিক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন’। পুরো এনআরসি প্ৰক্ৰিয়া চলছে সুপ্ৰিমকোর্টের নির্দেশ ও তদারকিতে। তাই শাহের ওই মন্তব্যের বিরুদ্ধে সুপ্ৰিমকোর্টের একটি একতরফা মামলা পরিচালনা করা উচিত। প্ৰদেশ কংগ্ৰেস প্ৰধান স্ট্ৰংরুমে রাখা ইভিএম-এর নিরাপত্তা নিয়েও সন্দেহ প্ৰকাশ করেন। বলেন,ইভিএম টেম্পারিং অথবা পাল্টানোর সম্ভাবনা নিয়েও তিনি উদ্বিগ্ন। কংগ্ৰেসের তরফে ইভিএম পাহারায় বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করারও সুপারিশ করেন তিনি। ভোট গণনার সময় ভিভিপিএটি মেশিনের ভোট গোনাও উচিত বলে তিনি মনে করেন।

Next Story