সংবাদ শিরোনাম

নেপালি নাগরিকদের জন্য পাসপোর্টের ব্যবস্থা করতে প্ৰধানমন্ত্ৰীর কাছে দাবি জানালো মহাসংঘ

মহাসংঘ

গুয়াহাটিঃ অসম সম্মিলিত মহাসংঘ রাজ্যে বসবাসকারী নেপালি নাগরিকদের জন্য পাসপোর্ট এবং ভিসার ব্যবস্থা চালু করতে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির কাছে দাবি জানিয়েছে। সোমবার প্ৰধানমন্ত্ৰীর উদ্দেশে পাঠানো এক স্মারকপত্ৰে মহাসংঘ বলেছে,‘গত কয়েক দশক ধরে বাংলাদেশ থেকে অবৈধ অনুপ্ৰবেশ ছাড়াও পড়শি দেশ নেপাল থেকেও নীরবে অপ্ৰতিরোধ্য গতিতে অনুপ্ৰবেশ ঘটেছে অসমে। তাই এই সব বিদেশিদের প্ৰতিও বাংলাদেশি অনুপ্ৰবেশকারীদের মতোই আচরণ করা উচিত’। অসমের স্থানীয় জনগণের সম্মিলিত মঞ্চ মহাসংঘ ১৯৫০ সালের পর অসমে ঢোকা সব নেপালিদের নাম ভোটার তালিকা,সেনসাস রিপোর্ট এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি থেকে অপসারণ করার দাবি জানিয়েছে। মহাসংঘ এই সব নেপালিদের নাম ভূমি,রাজনৈতিক অধিকার,চাকরি ও ব্যবসার সু্যোগ না দেওয়ারও দাবি করেছে।

সংবিধান চালু হওয়ার সময় থেকে গোর্খা সম্প্ৰদায়ের যে সব সদস্য ভারতীয় নাগরিক হয়েছেন অথবা যারা জন্মসূত্ৰে অথবা ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনের ব্যবস্থা অনু্যায়ী রেজিস্ট্ৰেশনের মাধ্যমে নাগরিকত্ব অর্জন করেছেন তাদের বিদেশি গণ্য করা যাবে না বলে স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰক রাজ্য সরকারকে যে ইস্তাহার দিয়েছে তার পরিপ্ৰেক্ষিতেই মহাসংঘ ওই দাবি জানিয়েছে। ১৯৫০ সালের ভারত-নেপাল চুক্তি রদ করার দাবি জানিয়ে স্মারকপত্ৰে বলা হয়েছে যে ১৯৫০-এর পর অসমে ঢোকা সব নেপালিদের ভোটাধিকার থাকা উচিত নয় এবং কোনও রাজনৈতিক দল থেকে তাদের প্ৰার্থিত্বে অনুমতি দেওয়া চলবে না। ভারত-নেপাল চুক্তিতে ভারত ও নেপালের লোকেদের উভয় দেশে অবাধ চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তাদের নিজস্ব সম্পত্তি গড়ার,ব্যবসা বাণিজ্য ও অন্যান্য সু্যোগ সুবিধারও অনুমতি রয়েছে ওই চুক্তিতে। মহাসংঘ স্মারকপত্ৰের প্ৰতিলিপি স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং এবং স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰকের যুগ্ম সচিব(উত্তরপূর্ব)সত্যেন্দ্ৰ গার্গের কাছেও দাখিল করেছে।