Begin typing your search above and press return to search.

পুলওয়ামায় আক্ৰমণের যোগ্য জবাব দেবে ভারতঃ মোদি

পুলওয়ামায় আক্ৰমণের যোগ্য জবাব দেবে ভারতঃ মোদি

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  15 Feb 2019 12:45 PM GMT

গুয়াহাটিঃ জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গির মারণ আক্ৰমণের সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির পৌরোহিত্যে নিরাপত্তা সম্পর্কে ক্যাবিনেট কমিটির এক বৈঠকে খোদ প্ৰধানমন্ত্ৰী বলেন,এই আক্ৰমণের কঠোর জবাব দেবে কেন্দ্ৰ। পুলওয়ামায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় বৃহস্পতিবার শেষ রাতে কমপক্ষেও ৩৭ জন জওয়ানের মৃত্যু হয়। আহত হন ৫ জন। কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। আজকের ক্যাবিনেট বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্ৰীয় অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি,স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং,প্ৰতিরক্ষামন্ত্ৰী নির্মলা সীতারমন ও বিদেশমন্ত্ৰী সুষমা স্বরাজ।

বৈঠক শেষে প্ৰধানমন্ত্ৰী বলেন,এই আক্ৰমণের যোগ্য জবাব দেওয়া হবে। হত্যাকাণ্ডের নিন্দা করে সরকারকে যে সব দেশ সমর্থন করেছে তাদের প্ৰতি ধন্যবাদ জানান প্ৰধানমন্ত্ৰী। ‘আমাদের পড়শি দেশ চরম অর্থনৈতিক সংকটে ভোগা সত্ত্বেও তারা যদি ভারতকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দেবে বলে ভাবছে তাহলে তাদের সেই আশা কোনওদিনও পূর্ণ হবে না’। তিনি বলেন,ভারত সন্ত্ৰাসের বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে লড়ছে। এবং এই ঘটনা সারা বিশ্বের দরবারে তোলা উচিত। ‘আমরা সন্ত্ৰাসের শিকড় উপড়ে ফেলবো এবং এরজন্য সেনাবাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। ‘আমি এটা বুঝতে পারছি,সারা দেশ এই ঘটনার জন্য ক্ষোভে ফুঁসছে এবং সেনাবাহিনীর শক্তি ও সাহসের প্ৰতি আমাদের পূর্ণ আস্থা রয়েছে। তবে আমি জোর গলায় বলছি,এই নারকীয় আক্ৰমণে যারা জড়িত তাদের শাস্তি পেতেই হবে’-বলেন মোদি। এদিকে প্ৰধানমন্ত্ৰী আরও বলেন,শহিদের এই আত্মত্যাগ বৃথা যাবে না। বীর শহিদদের পরিবারের পাশে রয়েছে সারা দেশ-বলেন প্ৰধানমন্ত্ৰী। বৈঠক শেষে কেন্দ্ৰীয় অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি বলেন,যারা এমন নারকীয় কাণ্ড ঘটিয়েছে এবং এজাতীয় সন্ত্ৰাসী কার্যকলাপে মদত দিচ্ছে তাদের চরম মূল্য দিতে হবে। পূর্ণ নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে সম্ভাব্য সব ব্যবস্থা গ্ৰহণ করা হবে। যারা এমন বর্বরোচিত কাণ্ড ঘটিয়েছে তাদের এর মূল্য দিতেই,হবে-বলেন জেটলি।

জেটলি বলেন,ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে এবিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। তবে এসম্পর্কে মুখ খুলতে অস্বীকার করেন তিনি।

আত্মঘাতী এই বোমা হামলায় ৩৭ জন সিআরপিএফ জওয়ান নিহত ও পাঁচজন আহত হন। এই আক্ৰমণের দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তান মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ।

Next Story