Begin typing your search above and press return to search.

প্ৰকৃত ভারতীয়দের সঙ্গে বিদেশির ফারাক নির্ধারণ করবে এনআরসি-সোনোয়াল

প্ৰকৃত ভারতীয়দের সঙ্গে বিদেশির ফারাক নির্ধারণ করবে এনআরসি-সোনোয়াল

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  11 Sep 2018 10:59 AM GMT

গুয়াহাটিঃ জাতীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)হচ্ছে এমন একটা হাতিয়ার যা একজন প্ৰকৃত ভারতীয় নাগরিক এবং একজন বিদেশির মধ্যে ফারাকটা স্পষ্টভাবে তুলে ধরবে। এই মন্তব্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়ালের। একই সঙ্গে সোনোয়াল দেশে কঠোর অভিবাসন নীতি প্ৰণয়ন করতে এবং ঢালাও অনুপ্ৰবেশ ঠেকাতে দেশের অন্যান্য রাজ্যেও এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়া শুরু করার ওপর জোর দেন।

নয়াদিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে সোমবার রামভায়উ মহালগি প্ৰবোধিনীর আয়োজিত ‘এনআরসি সীমান্ত প্ৰতিরক্ষা,সংস্কৃতি সুরক্ষা’ সম্পর্কিত বিষয়ে এক আলোচনাচক্ৰে বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। এনআরসি নবায়নের প্ৰয়োজনীয়তার ওপর আলোকপাত করে মুখ্যমন্ত্ৰী বলেন,অসমে ব্যাপক হারে অনুপ্ৰবেশের ঘটনা অসমিয়া সম্প্ৰদায়ের অস্তিত্বের ক্ষেত্ৰে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। উপজাতি এবং অন্যান্য বিভিন্ন সম্প্ৰদায়ের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানেই গড়ে উঠেছে অসমিয়া সংস্কৃতির ঐতিহ্য। ১৯০১ থেকে ১৯৭১ এই ৭০ বছরে অসমের জনসংখ্যা ৩২.৯০ লক্ষ থেকে ১৪৬ লাখে দাঁড়িয়েছে। এই বৃদ্ধির পরিমাণ ৩৪৩.৭৭ শতাংশ। অথচ এই সময়ে ভারতের জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে মাত্ৰ ১৫০ শতাংশ।

এটা অবৈধ অনুপ্ৰবেশেরই পরিণাম বলে উল্লেখ করেন সোনোয়াল। এভাবে অনুপ্ৰবেশ চলতে দেওয়া যায় না। অনুপ্ৰবেশ চলতে থাকলে তা সামাজিক সম্প্ৰীতি ও দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডতার ক্ষেত্ৰে ভয়ঙ্কর পরিণাম ডেকে আনবে-উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্ৰী। তিনি বলেন,অবৈধ অনুপ্ৰবেশ সমস্যার মোকাবিলায় অসমের এই এনআরসি প্ৰক্ৰিয়া দেশের অন্যান্য রাজ্যেও একটা মডেল হতে পারে। তিনি বলেন,এনআরসি-র সম্পূর্ণ খসড়া একটা আইনি প্ৰক্ৰিয়ার মাধ্যমে প্ৰস্তুত করা হয়েছে। একটা নির্ভুল এনআরসি প্ৰকাশে রাজ্য ও কেন্দ্ৰীয় সরকার এব্যাপারে সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশ মেনে সাংবিধানিক কর্তব্য পালন করেছে।

ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্ত সিল করা নিয়ে উচ্চ অগ্ৰাধিকার দেওয়ায় প্ৰধানমন্ত্ৰী মোদির প্ৰতি ধন্যবাদ জানান সোনোয়াল। বাংলাদেশের সঙ্গে থাকা সীমান্ত পুরোপুরি সিল হলে অনুপ্ৰবেশ সমস্যার স্থায়ী সমাধানে পৌঁছনো যাবে বলে উল্লেখ করেন সোনোয়াল। রাজ্যে অনুপ্ৰবেশকারীরা যাতে দেশের অন্য রাজ্যে আশ্ৰয় না পায় তা সুনিশ্চিত করারও আহ্বান জানান তিনি। কারণ অনুপ্ৰবেশকারীদের অন্য রাজ্যে আশ্ৰয় দেওয়া হলে অসমে এনআরসি নবায়নের কোনও অর্থই থাকবে না-উল্লেখ করেন সোনোয়াল।

Next Story