Top
Begin typing your search above and press return to search.

বনজ সম্পদ রক্ষায় প্ৰতিশ্ৰুতিবদ্ধ রংজুলি বন কার্যালয়

বনজ সম্পদ রক্ষায় প্ৰতিশ্ৰুতিবদ্ধ রংজুলি বন কার্যালয়

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  5 Oct 2018 8:22 AM GMT

গোয়ালপাড়াঃ রংজুলি রেঞ্জার বলেন কুমার দাসের তদারকিতে বনকর্মীদের একটি দল বুধবার কাহিবাড়িতে চোরাই কাঠ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে এক তল্লাশি অভিযানে নেমে দুজন চোরাই কাঠ ব্যবসায়ীকে আটক করে। কামরূপ গ্ৰামীণ জেলার সীমান্ত ঘেঁষা গোয়ালপাড়া জেলার বন কার্যালয়ের অধীনে রয়েছে রংজুলি রেঞ্জটি। গত দুবছরে রংজুলি রেঞ্জ চোরাই ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে কমপক্ষেও ৬০টি পাথর ও কাঠ বোঝাই ট্ৰাক বাজেয়াপ্ত করেছিল। বাজেয়াপ্ত এই সামগ্ৰীগুলির মূল্য কমপক্ষেও ২ কোটি টাকা।

বনজ সম্পদ রক্ষায় প্ৰতিশ্ৰুতিবদ্ধ রংজুলি বন কার্যালয়। ‘আমাদের এলাকায় বেড়ে ওঠা প্ৰচুর মূল্যবান শাল ও টিক গাছ রয়েছে,রয়েছে পাথর। বনকর্মী কম থাকার সু্যোগ নিয়ে দুষ্কৃতীরা এই বনজ সম্পদ লুটেপুটে নেওয়ার অহরহ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ ও প্ৰতিকূলতার মধ্যেও আমরা গত আগস্টে বনজ সম্পদ বোঝাই দুটি ট্ৰাক বাজেয়াপ্ত করেছি’-বলেন রংজুলির রেঞ্জার বলেন দাস।

‘অসমের মানুষের এই সম্পদ রক্ষা করতে গিয়ে আমাদের প্ৰতিদিনই চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে। দুষ্কৃতীরা প্ৰকাশ্যে বনকর্মীদের ওপর হামলা করছে। গত এপ্ৰিলে ধুপধরা থানার অধীন খেরোপাড়ায় অভিযানের সময় দুষ্কৃতীরা আমাদের সরাসরি আক্ৰমণ করে। ওই আক্ৰমণে দুজন স্টাফসহ আমিও আহত হয়েছিলাম-বলেন দাস। তিনি আরও বলেন,জেলায় রংজুলি হছে একমাত্ৰ রেঞ্জ যারা গত বুধবার ধুপধরা থানা এলাকার বিভিন্ন বনাঞ্চলে ৬০ হেক্টর বনভূমি থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করতে সফল হয়েছে।

Next Story