ন্যাশনাল

বিদেশি নাগরিকের অভিযোগে রাহুল গান্ধীকে নোটিশ স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰকের

রাহুল গান্ধী
File Photo

গুয়াহাটিঃ কংগ্ৰেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর বিদেশি নাগরিকত্ব থাকার অভিযোগ নিয়ে স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰক তাঁকে একটি নোটিশ ইস্যু করেছে। ওই নোটিশে রাহুল গান্ধীকে এবিষয়ে তাঁর অবস্থান ব্যাখ্যা করার জন্য ১৫ দিনের সময় দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় জনতা পার্টির সাংসদ সুব্ৰহ্মনিয়ান স্বামী অভি্যোগ করেছেন যে রাহুল গান্ধী কিছু নথিপত্ৰে নিজেকে ব্ৰিটিশ নাগরিক বলে ঘোষণা করেছেন।

দেশে সাত দফা লোকসভা নির্বাচন চলার মাঝামাঝি সময়ে স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰক এই নোটিশটি ইস্যু করে। উল্লেখ্য,রাহুল গান্ধী উত্তর প্ৰদেশের আমেথি এবং কেরলের ওয়েনাদ এই দুই লোকসভা কেন্দ্ৰ থেকে নির্বাচনে প্ৰতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়েছেন।

স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰকের নাগরিকত্ব বিভাগের ডিরেক্টর বিসি যোশি বলেছেন,তাঁর মন্ত্ৰক স্বামীর কাছ থেকে একটি অভিযোগপত্ৰ পেয়েছে,যাতে উল্লেখ করা হয়েছে ২০০৩ সালে ব্যাকড্ৰপস লিমিটেড নামে একটি কোম্পানির নাম ব্ৰিটেনে নথিভুক্ত হয়েছিল। চিঠিতে ওই কোম্পানির ঠিকানা লেখা হয়েছে ৫১ সাউথগেট স্ট্ৰিট,উইনচেস্টার,হ্যাম্পশায়ার  এস ০২৩৯ইএইচ এবং গান্ধী ওই কোম্পানির একজন ডিরেক্টর ও সচিব।

স্বামীর অভি্যোগের উদ্ধৃতি দিয়ে মন্ত্ৰক বলেছে,‘রাহুলের জন্ম তারিখ ১৯৭০-এর ১৯ জুন এবং তিনি নিজেকে ব্ৰিটিশ নাগরিক বলে ঘোষণা করেছেন। ২০০৫ সালের ১৩ অক্টোবর এবং ২০০৬-এর ৩১ অক্টোবর কোম্পানির বার্ষিক রিটার্ন দাখিলের সময়’।

অভি্যোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে ২০০৯ সালের ১৭ ফেব্ৰুয়ারি কোম্পানির ডিসলিউশন অ্যাপ্লিকেশনেও রাহুল গান্ধীর ন্যাশনালিটি ‘ব্ৰিটিশ’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল। তাই স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰক নোটিশ পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে রাহুলকে প্ৰকৃত অবস্থান স্পষ্ট করতে বলেছে।

স্বামী এরআগে ২০১৫ সালে সংসদের এথিক্স কমিটির সামনে এই অভি্যোগ এনেছিলেন এবং এরপরও কয়েকবার তাঁকে এই অভিযোগ আনতে দেখা গেছে। গান্ধী এর জবাবে এথিক্স কমিটিকে বলেছিলেন বিজেপি নেতা দেশকে ভুল পথে পরিচালিত করছেন। রাহুল এব্যাপারে স্বামীকে তাঁর দাবির স্বপক্ষে তথ্য প্ৰমাণ তুলে ধরার জন্য চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন। ব্ৰিটিশ নাগরিকত্ব চাওয়ার কথা অস্বীকার করে গান্ধী বলেছেন তাঁর নাম কালিমা লিপ্ত করতেই এমন প্ৰচেষ্টা চালানো হয়েছে।