সংবাদ শিরোনাম

বিলের বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ এসএকেপি-র

এসএকেপি

গুয়াহাটিঃ সারা অসম কর্মচারী পরিষদ(এএসকেপি)নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ২০১৯-এর প্ৰতিবাদে বুধবার বেলা ১১ টা থেকে দুটো পর্যন্ত টানা তিন ঘন্টা রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ প্ৰদর্শন করে। সংগঠনের ৫২টি জেলা কমিটির পৃষ্ঠপোষকতায় রাজ্যের সব জেলা ও মহকুমা সদরে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়।

গুয়াহাটিতে পরিষদ সদস্যরা দীঘলিপুকুর পাড়ে কেন্দ্ৰীয়ভাবে বিলের বিরুদ্ধে প্ৰতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন।

পরিষদের দায়িত্বে থাকা সভাপতি ভূপেন বরুয়া বলেন,সংগঠনের দাবি হলো কেন্দ্ৰ ও রাজ্য সরকারকে ওই বিল রাজ্যসভায় তোলার সবধরনের প্ৰয়াস বন্ধ করতে হবে।

সরকারের এহেন পদক্ষেপের ফলে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে ইতিমধ্যেই বিরূপ প্ৰভাব পড়েছে বলে উল্লেখ করে সংগঠনের তরফে বলা হয়েছে,‘সরকার যদি বিলটি পাসের জন্য গো ধরে থাকে তাহলে রাজ্যের পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটবে এবং এরজন্য উভয় সরকারই দায়ী থাকবে’।

কর্মচারি পরিষদ একইসঙ্গে অসম চুক্তির সমস্ত শর্ত যথাযথভাবে এবং দ্ৰুত রূপায়ণ করার দাবি জানিয়েছে। তারা আরও উল্লেখ করেছে সমস্ত বিদেশিদের অসম ছাড়তে হবে,তারা যেকোন জাতি বা ধর্মের হোন না কেন। ‘আমরা ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়া নিয়ে সরকারের প্ৰয়াস কখনোই মেনে নেবো না। কারণ এটা ভারতীয় সংবিধানের সম্পূর্ণ পরিপন্থী। অসম সরকারকে এব্যাপারে মেঘালয়,মিজোরাম,নাগাল্যান্ড ও মণিপুর সরকারের উদাহরণ অনুসরণ করতে হবে। ওই রাজ্যগুলি ইতিমধ্যেই বিলের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছে’-উল্লেখ করেছে পরিষদ।

‘আমরা রাজ্যের আম জনতার পাশেই থাকবো বলে উল্লেখ করে এসএকেপি নেতা বলেন,বিলের বিরুদ্ধে আমরা আন্দোলন আরও জোরদার করে তুলবো। পরিষদের এই অবস্থান ধর্মঘটের সময় উপস্থিত ছিলেন আসুর মুখ্য উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল কুমার ভট্টাচার্য,আসু সভাপতি দীপাঙ্ক কুমার নাথ,অগপ নেতা ও অন্যান্য বিশিষ্ট নাগরিকরা।