ব্ৰেকিং নিউজ

ভূমিকম্প,সুনামিতে ইন্দোনেশিয়ায় ৫০ জনের মৃত্যু,আহত ৩৫০-এর বেশি

ইন্দোনেশিয়া

উপকূলীয় শহর ইন্দোনেশিয়ায় শুক্ৰবার প্ৰবল ভূমিকম্প অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্ৰতা ছিল ৭.৫। ভূমিকম্পের পরপরই সুনামি ধেসে আসে। ভূমিকম্পে ৫০ জনের মৃত্যু হওয়ার নিশ্চিত খবর পাওয়া গেছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার মতে,ভূমিকম্পে আহত হয়েছেন ৩৫০ জনেরও বেশি। বড় ধরনের এই ভূমিকম্পের পরও আরও তিনবার শহর কেঁপে ওঠে। এই তিনটি কম্পনের তীব্ৰতা ছিল রিখটার স্কেলে ৬.০,৭.৪ এবং ৬.১। সেণ্ট্ৰাল প্ৰভিন্সেই কম্পনের তীব্ৰতা ছিল সবচেয়ে বেশি।

ওদিকে ডনগালা জেলার তালিসা সৈকতের কাছে সুনামি আছড়ে পড়ে। সুলাওয়েন্সি দ্বীপের পালু ও আশপাশ অঞ্চলে সমুদ্ৰের ঢেউ দুমিটারের বেশি ওপরে উঠে যায়। ওই সব এলাকায় সুনামির তাণ্ডব থেকে বাঁচতে লোকজনকে প্ৰাণ নিয়ে ছোটাছুটি করতে দেখা গেছে। সমুদ্ৰের লহর যে কী বিধ্বংসী রূপ নিয়েছে তার ছবি বিভিন্ন সোসিয়েল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে প্ৰচার করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলেছেন,সুনামির ঢেউ ১০ ফুট পর্যন্ত উপরে উঠেছে। পালুতে একটা বিল্ডিঙের একতলার ওপরে ঢেউ ওঠে। সুনামির ঢেউয়ে জলে তলিয়ে গেছে সমুদ্ৰ উপকূলের কাছে থাকা বেশ কিছু বিল্ডিং।

গত ৫ আগস্টেও প্ৰলয় ভূমিকম্প ইন্দোনেশিয়াকে নাড়িয়ে দিয়ে যায়। ওই সময়ও ভূমিকম্পে মারা গিয়েছিলেন ৪৬০ জনেরও বেশি। সুনামির ঝাপটায় উপকূলে বহু মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। সুনামি পরবর্তী সময়ে আবার কম্পনের আশঙ্কায় সরকারি কর্তৃপক্ষ জনগণকে ঘরে না থেকে সড়ক,মাঠ অথবা খোলা জায়গায় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।