ভোটার পরিচয়পত্ৰের সঙ্গে আধার নম্বর সংযুক্ত করতে পারে নির্বাচন কমিশন

ভোটার পরিচয়পত্ৰের সঙ্গে আধার নম্বর সংযুক্ত করতে পারে নির্বাচন কমিশন

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে শুধুমাত্র প্যান কার্ড এবং আয়কর দাখিলের ক্ষেত্রে ১২ সংখ্যার আধার নম্বর বাধ্যতামূলক থাকলেও বাকি ক্ষেত্রগুলিতে গুরুত্ব হারিয়েছে। তবে সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই ভোটার পরিচয়পত্রের সঙ্গে আধার নম্বর সংযুক্তিকরণের জন্য আইন সংশোধন করতে পারে জাতীয় নির্বাচন কমিশন।কমিশন জনপ্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৫১-এর সংশোধনের প্রস্তাব রেখেছে বলেছে জানা গিয়েছে।

আইন মন্ত্রকের কাছে পাঠানো প্রস্তাবে কমিশন দাবি করেছে, ভোটার পরিচয়পত্রের সঙ্গে ১২ সংখ্যার আধার নম্বর যোগ করার ফলে নির্বাচকদের সুরক্ষা আরও বেশি করে সুনিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এ ব্যাপারে গোপনীয়তা রক্ষার যাবতীয় পদক্ষেপ নেওয়ার মাধ্যমেই ভোটার পরিচয়পত্রের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের উদ্যোগ বাস্তবায়িত হবে।বর্তমানে ভারতে মোট ভোটারের সংখ্যা প্রায় ৭৫ কোটি।

২০১৫ সালের আগে নির্বাচন কমিশন ভোটার পরিচয়পত্রের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের কাজ শুরু করে। তার পরেই নাগরিকের সামাজিক নিরাপত্তার প্রশ্ন তুলে আধারের বৈধতা সংক্রান্ত মামলা পৌঁছায় সুপ্রিম কোর্টে। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিকে তাকিয়েই কমিশন ওই উদ্যোগ নিয়ে আর অগ্রসর হয়নি।সুপ্রিম কোর্ট গত ২৬ সেপ্টেম্বরের রায়ে স্পষ্টতই জানিয়ে ছিল আইনগত যৌক্তিকতা দর্শানোর পর আধার সংযুক্তিকরণ করতে পারবে কেন্দ্র। সেই রায়কে হাতিয়ার করেই কমিশন আইন কমিশনের কাছে জনপ্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৫১-এর সংশোধনের প্রস্তাব পাঠিয়েছে বলে সূত্রের দাবি। আইন সংশোধনে সম্মতি মিললেই ভোটার পরিচয়পত্রে বাধ্যতামূলক হতে পারে ১২ সংখ্যার আধার।

logo
Sentinel Assam- Bengali
bengali.sentinelassam.com