Top
Begin typing your search above and press return to search.

মাসে ১৫০০ টাকার বেশি খরচ করেন উত্তর পূর্বাঞ্চলের ধূমপায়ীরা

মাসে ১৫০০ টাকার বেশি খরচ করেন উত্তর পূর্বাঞ্চলের ধূমপায়ীরা

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  9 Aug 2018 5:40 PM GMT

গুয়াহাটিঃ মারণ রোগ ক্যান্সার নিয়ন্ত্ৰণে যখন দেশব্যাপী লড়াই চলছে সে সময় উত্তর পূর্বাঞ্চলে ধূমপায়ীদের সংখ্যা ক্ৰমেই বেড়ে চলেছে। উত্তর পূর্বাঞ্চলের একএকজন ধূমপায়ী সিগারেট বাবদ মাসে ১৫০০-রও বেশি টাকা খরচ করে থাকেন,যা দেশের অন্যান্য অঞ্চলের গড় হিসেবে থেকে অনেক বেশি। ধূমপানের এই প্ৰবণতা বৃদ্ধিই উত্তর পূর্বাঞ্চলে ক্যান্সার আক্ৰান্তের সর্বোচ্চ সংখ্যার জন্য মূলত দায়ী।

গ্লোবাল অ্যাডাল্ট টোবাকো সার্ভের(জিএটিএস ২)মতে,নাগাল্যান্ডে সিগারেট বাবদ মাসে খরচের অঙ্ক হলো ১,৪৭৪ টাকা,১,২৪২ টাকা অরুণাচল প্ৰদেশে,১,১৯২ টাকা মেঘালয়ে,৮০৩ টাকা ত্ৰিপুরায়,অসমে ৭৯৯ টাকা,মিজোরামে ৭১৩ টাকা ও মণিপুরে ৩৫১ টাকা। কেন্দ্ৰীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্ৰক সম্প্ৰতি এই তথ্য প্ৰকাশ করেছে। এই ক্ষেত্ৰে জাতীয় গড় হিসেবে মাসিক খরচের পরিমাণ হচ্ছে ১১৯২ টাকা। কেন্দ্ৰীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্ৰক সম্প্ৰতি উত্তর পূর্বাঞ্চলের জন্য এই ডাটা প্ৰস্তুত করেছে।

অনুরূপভাবে অসমে বিড়ি বাবদ মাসিক খরচের অংশ হচ্ছে ৭৮৭ টাকা। এছাড়া অরুণাচল প্ৰদেশ,ত্ৰিপুরা,নাগাল্যান্ড,মিজোরাম ও মেঘালয়ে বিড়ি বাবদ খরচের পরিমাণ হচ্ছে ক্ৰমে ৩৩১,৩১৭,২৬৫,২৫৬,১৮১ টাকা। মণিপুরে বিড়ি বাবদ মাসিক খরচের পরিমাণ হচ্ছে ৩৫ টাকা। এই ক্ষেত্ৰে জাতীয় গড় হিসেবের পরিমাণ হচ্ছে ২৮৪ টাকা।

খরচের এই পরিখংখ্যান যাচাই করে দেখলে বোঝা যায় যে রাজ্যে একজন ব্যক্তি দিনে এক প্যাকেট সিগারেট সেবন করছেন। একটা প্যাকেটে ১০টা সিগারেট স্টিক থাকে। তাই যদি কোনও ব্যক্তি দিনে ১০টি সিগারেট খান তাহলে তার ক্যান্সার হওয়া অনিবার্য। বি বরুয়া ক্যান্সার ইন্সটিটিউটের একজন চিকিৎসক একথা জানান।

Next Story