Begin typing your search above and press return to search.

মিজোরামের নির্বাচনে মোট প্ৰতিদ্বন্দ্বী প্ৰার্থীর অর্ধেকেরই বেশি ধনকুবের

মিজোরামের নির্বাচনে মোট প্ৰতিদ্বন্দ্বী প্ৰার্থীর অর্ধেকেরই বেশি ধনকুবের

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  23 Nov 2018 7:40 AM GMT

নয়াদিল্লিঃ আগামি ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় ৪০ সদস্যের মিজোরাম বিধানসভার নির্বাচনে মোট ২০৯ জন প্ৰার্থী প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রাজ্যে প্ৰতিদ্বন্দ্বী প্ৰার্থীদের অর্ধেকেরও বেশি ধনকুবের। কয়েক লক্ষ কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে এই সব প্ৰার্থীদের। নির্বাচনে অবতীর্ণ নজন প্ৰার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলায় জড়ানোর অভি্যোগ রয়েছে।

নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ সংস্থা দ্য অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্ৰ্যাটিক রিফর্মস(এডিআর)-এর বৃহস্পতিবার প্ৰকাশিত এক বিশ্লেষণ অনু্যায়ী রাজ্যে এবারের নির্বাচনে মোট ১১৬ জন প্ৰার্থী লক্ষ কোটি টাকার মালিক। আঞ্চলিক দল মিজো ন্যাশনাল ফ্ৰন্টের(এমএনএফ)৩৫ জন প্ৰার্থী ধনকুবেরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন। কংগ্ৰেসের ৩৩ জন প্ৰার্থী রয়েছেন তালিকার দ্বিতীয় স্থানে এবং বিজেপিতে এধরনের প্ৰার্থী আছেন সাকুল্যে ১৭ জন।

এমএনএফ-এর লালরিনেনগা সাইলো মামিট জেলার হ্যাচাক কেন্দ্ৰ থেকে লড়ছেন। প্ৰার্থীদের মধ্যে সবচেয়ে ধনবান তিনি। সাইলোর সম্পত্তির পরিমাণ ১০০ কোটি টাকারও বেশি। যে সব ধনকুবের প্ৰার্থীরা নির্বাচনে লড়ছেন তাঁদের প্ৰত্যেকের সম্পত্তির পরিমাণ গড়ে ৩.১১ কোটি টাকা। ২০১৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ধনবান প্ৰত্যেক প্ৰার্থীর গড়ে সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ২.৩১ কোটি টাকা। সূত্ৰটি আরও বলেছে,এবার প্ৰতিদ্বন্দ্বিতার আসরে থাকা ৯ জন প্ৰার্থী ইতিমধ্যেই ফৌজদারি মামলার মুখোমুখি হয়েছেন। এদের মধ্যে কংগ্ৰেস ও এমএনএফ দুটো দলের ৩ জন করে প্ৰার্থী রয়েছেন এবং বিজেপি-র আছেন ২ জন।

শিক্ষা ক্ষেত্ৰে ১৪২ জন প্ৰার্থী স্নাতক অথবা তাঁর ঊর্ধ্বে রয়েছেন,৬০ জন স্কুল ছুট এবং একজন অশিক্ষিত। লড়াইয়ের ময়দানে মাত্ৰ ১৮ জন মহিলা আছেন যা মোট প্ৰার্থীর ৯ শতাংশ। খ্ৰিস্ট ধর্মাবলম্বী অধ্যুষিত পাহাড়ি রাজ্য মিজোরামে ৪০ সদস্যের বিধানসভা নির্বাচন হচ্ছে আগামি ২৮ নভেম্বর। ১৯৮৭ সালে মিজোরাম পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদায় উন্নীত হওয়ার পর থেকে মাঝখানে ১০ বছর অর্থাৎ ১৯৯৮ থেকে ২০০৮ সাল ছাড়া কংগ্ৰেসই এ রাজ্যের ক্ষমতায় রয়েছে।

Next Story