Top
Begin typing your search above and press return to search.

মিজোরামে নির্বাচনী প্ৰচারে প্ৰধানমন্ত্ৰী

মিজোরামে নির্বাচনী প্ৰচারে প্ৰধানমন্ত্ৰী

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  23 Nov 2018 11:24 AM GMT

গুয়াহাটিঃ নির্বাচনমুখী মিজোরামে আজ একদিনের সফরে এসেছেন প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি। প্ৰধানমন্ত্ৰী এদিন লুংলেই-র এক জনসভায় ভাষণ দেবেন। প্ৰধানমন্ত্ৰীর সফর সম্পর্কে বিজেপি-র মিজোরাম শাখার সভাপতি জেভি হালনা বলেন,মোদি আইজলে কোনও জনসভা করবেন না,লুংলেই-র জনসভায়ই ভাষণ দেবেন তিনি। ইয়ং,মিজো অ্যাসোসিয়েশন(ওয়াইএমএ)এবং মিজো হিমিচি ইমসুই খোয়াম পাওল(এমএইচআইপি)-এর সঙ্গে এক সংক্ষিপ্ত বৈঠকেও মিলিত হবেন প্ৰধানমন্ত্ৰী।

মিজোদের সর্বোচ্চ সংস্থা হচ্ছে ওয়াইএমএ এবং এমএইচআইপি হচ্ছে মিজো মহিলাদের একটি সংগঠন। এই দুটোই মিজোরামের দুটি প্ৰভাবশালী অসামরিক সামাজিক সংস্থা। এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে যে কংগ্ৰেস এরআগে আসাম রাইফেলসের গ্ৰাউন্ডে মোদিকে সভা করার অনুমতি না দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল। এব্যাপারে নিশ্চিত করে মিজোরাম প্ৰদেশ কংগ্ৰেস কমিটির মুখপাত্ৰ লালিনা চুঙ্গা বলেন,কংগ্ৰেস আসাম রাইফেলসের গ্ৰাউন্ডে মোদিকে সভা করতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ওদিকে বিজেপি পরিকল্পনা নিয়েছিল মোদির সভা আসাম রাইফেলস গ্ৰাউন্ডেই আয়োজন করার। এই স্থানটি সভা করার জন্য সব দিক থেকেই উপযুক্ত। আসাম রাইফেলস গ্ৰাউন্ডে রাহুল গান্ধীর সভা করতে অনুমতি দিতে অস্বীকার করার জন্য বিজেপি রাইফেলসকে চাপ দিয়েছিল বলে কংগ্ৰেস অভিযোগ করেছে। চুঙ্গা বলেন,‘আসাম রাইফেলস গ্ৰাউন্ড বিজেপি নিয়ন্ত্ৰণ করছে’।

গত মঙ্গলবার ওই গ্ৰাউন্ডে কংগ্ৰেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে সভা করতে অনুমতি দেওয়া হয়নি। ফলে রাহুলের সভাস্থল আইজলের শহরতলি মুয়ালপুইয়ে মিজোরাম সশস্ত্ৰ পুলিশের প্যারেড গ্ৰাউন্ডে স্থানান্তর করতে হয়েছিল বলে মুখপাত্ৰটি উল্লেখ করেন। কংগ্ৰেসকে যখন আসাম রাইফেলসের গ্ৰাউন্ডে সভা করার অনুমতি দেওয়া হয়নি সেক্ষেত্ৰে বিজেপি ওই মাঠে সভার অনুমতি কি করে পেতে পারে-প্ৰশ্ন তোলেন চুঙ্গা।

Next Story