Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

রাজ্যসভা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত,উঠলো না নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল

রাজ্যসভা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত,উঠলো না নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  13 Feb 2019 9:52 AM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যসভা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত রাখায় নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল ২০১৬(ক্যাব)আজ উত্থাপন করা যায়নি। বুধবার বিরোধীদের তুমুল প্ৰতিবাদ ও হইচইয়ের জন্য রাজ্যসভা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত রাখা হয়। আজই ছিল মোদি র কার্যকালে সংসদ অধিবেশনের শেষ দিন।

পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনু্যায়ী স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং আজ বিলটি উত্থাপন করার কথা ছিল। কিন্তু শেষপর্যন্ত বিলটি রাজ্যসভায় পেশ করা যায়নি সভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু দুপুর ১২.৫০ মিনিটে সভা মুলতুবি ঘোষণা করায়। রাজ্যসভায় প্ৰয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় সরকার এ বিল উত্থাপনে আর এগোয়নি।

উত্তর পূর্বাঞ্চলের মানুষ বিশেষ করে অসম,মেঘালয়,মণিপুর ও মিজোরামে ক্যাবের বিরুদ্ধে জোর আন্দলন চালাচ্ছিলেন। বিলটি রাজ্যসভায় না ওঠায় আখেরে অসম ও উত্তর পূর্বাঞ্চলের আন্দোলনকারীদের জয় সূচিত হলো। কেন্দ্ৰ রাজ্যসভায় এই বিতর্কিত বিল পাস করতে না পারায় নিশ্চিতভাবে অসম ও উত্তর পূর্বাঞ্চলের মানুষ একটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন।

ক্যাব পাসের মাধ্যমে বাংলাদেশ,পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে অবৈধভাবে আসা লোকেদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দিতেই এই বিল এনেছিল কেন্দ্ৰ। এই বিল অসম এবং উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলির প্ৰতি এক হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছিল। ভাষা,সংস্কৃতি,অস্তিত্বের সংকটে বিলের বিরুদ্ধে আসু,নেসো সহ রাজ্যের বিভিন্ন সংগঠন ও উত্তর পূর্বাঞ্চলের অন্যান্য রাজ্য ঐক্যবদ্ধ প্ৰতিবাদে মুখর হয়ে ওঠে। উত্তর পুবের মানুষের উত্তাল প্ৰতিবাদের মুখে পড়ে অবশেষে কেন্দ্ৰ বিলটি রাজ্যসভায় উত্থাপন করা থেকে বিরত থাকে। বিলটি রাজ্যসভায় না ওঠায় আন্দোলনকারীদেরই জয় সূচিত করল। এই খবরে অসম এবং উত্তর পূর্বাঞ্চলে আনন্দের জোয়ার বইছে। আসুর সাধারণ সম্পাদক লুরিনজ্যোতি গগৈ এটাকে গণতন্ত্ৰের জয় বলে উল্লেখ করেন। আসুর উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল কুমার ভট্টাচার্য এব্যাপারে প্ৰতিক্ৰিয়া ব্যক্ত করে বলেন,কেন্দ্ৰ যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের কোনও পদক্ষেপ নিতে না পারে তার জন্য আমাদের সবসময় সচেতন থাকতে হবে।

Next Story