সংবাদ শিরোনাম

রাজ্যে তৃতীয় দফার নির্বাচনে বেলা ১১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ২৮.৬৪ শতাংশ

তৃতীয় দফার নির্বাচনে

গুয়াহাটিঃ অসমের চারটি লোকসভা কেন্দ্ৰে আজ তৃতীয় দফায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মর্যাদাসম্পন্ন এই চারটি কেন্দ্ৰ হচ্ছে গুয়াহাটি,বরপেটা,ধুবড়ি ও কোকরাঝাড়(সংরক্ষিত)। সকাল সাতটায় বিভিন্ন বুথে ভোটগ্ৰহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৫টা অবধি। মহানগরী গুয়াহাটির বিভিন্ন ভোট কেন্দ্ৰে সাতসকালে ভোটারদের দীর্ঘ সারি দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। আজ বেলা ১১টা পর্যন্ত এই চারটি লোকসভা কেন্দ্ৰে ২৮.৬৪ শতাংশ ভোট পড়ার রিপোর্ট পাওয়া গিয়েছে। গুয়াহাটির কালাপাহাড়,কাহিলিপাড়া,রিহাবাড়ি এলাকার বুথগুলিতে সকাল থেকেই ভোটাররা ভিড় জমান। তবে বরিষ্ঠ নাগরিকদের ভোটাধিকার প্ৰয়োগে বিশেষ কোনও বেগ পেতে হয়নি। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটদানের গতি আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। বেলা ১১টা পর্যন্ত গুয়াহাটি কেন্দ্ৰে ২৯.৪৭,বরপেটা ২৫.৮৬,কোকরাঝাড় ২৯.০২ এবং ধুবড়িতে ৩১.৫৪ শতাংশ ভোট পড়ার রিপোর্ট পাওয়া গেছে।

অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সুনিশ্চিত করতে সব ধরনের প্ৰস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্ৰহণ করা হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে মোতায়েন করা হয়েছে ২০০ কোম্পানি সুরক্ষা বাহিনী। অসম পুলিশ তো রয়েছেই। জরুরিকালীন পরিস্থিতি সামাল দিতে প্ৰস্তুত রাখা হয়েছে তিনটি হেলিকপ্টার। এরআগের দুদফা নির্বাচনে মোট ১৭৯ কোম্পানি সুরক্ষা বাহিনীকে কাজে লাগানো হয়েছিল। কিন্তু এবার তুলনামূলকভাবে অতিরিক্ত সুরক্ষা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে চারটি লোকসভা আসনের এক্তিয়ারে বেশকটি অত্যন্ত স্পর্শকাতর ভোট কেন্দ্ৰ থাকায়। আজ এই চার কেন্দ্ৰে মোট ৫৪ জন প্ৰার্থীর ভাগ্য ইভিএমে বন্দি হচ্ছে।

প্ৰাপ্ত রিপোর্ট অনু্যায়ী,৩৮,৩০৮ জন নির্বাচন কর্মীকে আজকের নির্বাচন পরিচালনার কাজে লাগানো হয়েছে। রাজ্যে শেষ দফার নির্বাচনে ৪৩৬ মাইক্ৰো অবজারভার,পাঁচজন জেনারেল অবজারভার,চারজন এক্সপেনডিচার অবজারভার,তিন জন পুলিশ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়াও ১২৫টি ফ্লাইং স্কোয়াড টিম,  ১১২ স্টেটিক সার্ভেইল্যান্স টিম,৮৩  ভিডিও সার্ভেইল্যান্স টিম নির্বাচন তদারক করবে।

তৃতীয় দফার নির্বাচনে গুয়াহাটি কেন্দ্ৰে প্ৰার্থী রয়েছেন সাকুল্যে ১৭ জন। এই কেন্দ্ৰে কংগ্ৰেস প্ৰার্থী ববিতা শর্মা ও বিজেপির কুইন ওজার মধ্যেই মূল লড়াই হতে পারে।

বরপেটায় লড়াইয়ের ময়দানে আছেন ১৩ জন প্ৰার্থী। এই কেন্দ্ৰে অগপ-র কুমার দীপক দাস,এআইইউডিএফ-এর রফিকুল ইসলাম ও কংগ্ৰেসের আব্দুল খালেকের মধ্যে লড়াই জমবে বলে আঁচ করা হচ্ছে। ধুবড়িতে লড়াইয়ের ময়দানে রয়েছেন ১৫ জন প্ৰার্থী। এখানেও এআইইউডিএফ সুপ্ৰিমো বদরুদ্দিন আজমল,অগপর জাভেদ ইসলাম ও কংগ্ৰেস প্ৰার্থী আবু তাহের বেপারির মধ্যে ত্ৰিমুখী লড়াই হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ওদিকে কোকরাঝাড়(সংরক্ষিত)আসনে লড়াইয়ের ময়দানে রয়েছেন ৯ জন প্ৰার্থী। এই কেন্দ্ৰে বর্তমান সাংসদ নবকুমার শরনিয়া(নির্দল),বিপিএফ-এর প্ৰমীলা রানি ব্ৰহ্ম,কংগ্ৰেসের শব্দরাম রাভা এবং ইউপিপি(লিবারেল)প্ৰার্থী উর্খাও গৌরা ব্ৰহ্মের মধ্যে চতুর্মুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা। তিন দফার ভোটে প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন মোট ১৪৫ জন প্ৰার্থী। এদের মধ্যে ১১ এপ্ৰিল অনুষ্ঠিত প্ৰথম দফায় ৪১ জন,১৮ এপ্ৰিল দ্বিতীয় দফায় ৫০ প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। আজ তৃতীয় দফায় ৫৪ জন প্ৰার্থী প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তৃতীয় দফায় ৯,৫৭৭টি পোলিং স্টেশনে ভোটগ্ৰহণ চলছে। এরমধ্যে ৬৯০টি থেকে সরাসরি ওয়েবকাস্ট চলবে।