Top
Begin typing your search above and press return to search.

রাজ্যে বনধ,অবরোধের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের কঠোর পদক্ষেপ

রাজ্যে বনধ,অবরোধের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের কঠোর পদক্ষেপ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  20 March 2019 12:34 PM GMT

গুয়াহাটিঃ গৌহাটি হাইকোর্ট রাজ্যে বনধ আহ্বানকারী দল সংগঠনের বিরুদ্ধে দ্ৰুত ব্যবস্থা গ্ৰহণ করতে মঙ্গলবার একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করেছে অসম পুলিশের উদ্দেশে। ওই রায়ে হাইকোর্ট আরও বলেছে,বনধ-অবরোধের সময় জীবন ও সম্পত্তির যে সব ক্ষয়ক্ষতি হবে তার দায়ভার বহন করতে হবে বনধ আহ্বানকারী দল,সংগঠনগুলিকে। এই উদ্দেশ্যে হাইকোর্ট বনধে ক্ষতিগ্ৰস্তদের জন্য রাজ্য সরকারকে তিন মাসের মধ্যে একটা ক্ষতিপূরণ তহবিল(বিএলসিএফ)গঠন করার নির্দেশ দিয়েছে,যাতে বনধ আহ্বানকারী সংস্থাগুলি ক্ষতিপূরণের অর্থ মিটিয়ে দিতে পারে। কোনও সংগঠন বা দল বনধ বা অবরোধের ডাক দিলে সেই সংগঠনের বিরুদ্ধে পুলিশকে চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে মামলা দায়ের করতে বলা হয়েছে হাইকোর্টের রায়ে। বনধে ক্ষয়ক্ষতির সম্পূর্ণ দায় নিতে হবে বনধ আহ্বানকারী সংস্থাকে। সড়ক অথবা রেল অবরোধের ক্ষেত্ৰেও এই একই আইন অবলম্বন করা হবে বলে হাইকোর্টের রায়ে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

লোয়ার অসম ইন্টার ডিস্ট্ৰিক স্টেজ ক্যারেজ বাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের দাখিল করা একটি রিট আবেদনের প্ৰেক্ষিতে এই রায় দিয়েছে হাইকোর্টে। হাইকোর্টের বিচারপতি উজ্জ্বল ভুঁইয়ার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ গতকাল এই ঐতিহাসিক রায়টি দেয়। ওই রায়ে বনধ,অবরোধ ইত্যাদি সম্পূর্ণ অবৈধ ও অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছে বেঞ্চ। হাইকোর্ট রায়ে আর বলেছে বনধের বিরুদ্ধে মামলা নথিভুক্ত করার পাশাপাশি রাজ্যের গৃহ ও রাজনৈতিক বিভাগকে এক মাসের মধ্যে রিপোর্ট দাখিল করতেও বলা হয়েছে। বনধে কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার সবিশেষ উল্লেখ করে রিপোর্ট দাখিল করতে হবে গৃহ ও রাজনৈতিক বিভাগকে।

Next Story