Top
Begin typing your search above and press return to search.

রূপসি বিমানবন্দর উন্নয়ন ও আধুনিকীকরণের শিলান্যাস করলেন মুখ্যমন্ত্ৰী

রূপসি বিমানবন্দর উন্নয়ন ও আধুনিকীকরণের শিলান্যাস করলেন মুখ্যমন্ত্ৰী

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  22 Feb 2019 1:38 PM GMT

গুয়াহাটিঃ মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল আজ ধুবড়ির কাছে রূপসি বিমানবন্দর উন্নয়নের শিলান্যাস করেন। কেন্দ্ৰীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্ৰী সুরেশ প্ৰভু,প্ৰতিমন্ত্ৰী জয়ন্ত সিনহা ও এএআইর চেয়ারম্যান ড.গুরুপ্ৰসাদ মহাপাত্ৰ নতুন দিল্লি থেকে ভিডিও কনফারেন্স যোগে এ উপলক্ষে বিমানবন্দর চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্ৰহণ করেন। বিটিসি প্ৰধান হাগ্ৰামা মহিলারি,রাজ্যের পর্যটন মন্ত্ৰী চন্দন ব্ৰহ্ম,বিধায়ক অশ্বিনী রায় সরকার,বিধায়ক অশোক কুমার সিংঘি,বিধায়ক নিজানুর রহমান,বিধায়ক কানেল সিং নার্জারি এবং এএআই-র রিজিওনাল এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর ডি কে কামা-এর উপস্থিতি অনুষ্ঠানের সৌষ্ঠব বৃদ্ধি করে। শিলান্যাস অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্ৰী সোনোয়াল বলেন,প্ৰধানমন্ত্ৰী এবং অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্ৰকের উদ্যোগের জন্যই অসমের রূপসি বিমানবন্দর আধুনিকীকরণ ও উন্নয়নের ব্যাপারে মানুষের স্বপ্ন সাকার হতে চলেছে।

আন্তর্জাতিক উড়ান প্ৰকল্পে অসমকে প্ৰথম স্টেশন হিসেবে বাছাই করার জন্য মুখ্যমন্ত্ৰী বিমান পরিবহণ মন্ত্ৰী সুরেশ প্ৰভুকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন,রাজধানী শহর গুয়াহাটি থেকে আন্তর্জাতিক লক্ষ্যে উড়ে যাওয়ার কথা ভাবতে পারাটা উত্তর পূর্বাঞ্চলের জন্য একটা গৌরবের মুহূর্ত। তিনি জনগণকে আশ্বস্ত করে বলেন,চলতি বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যে রূপসি থেকে বিমান উড়ান শুরু হয়ে যাবে। রূপসি বিমানবন্দরের উন্নয়ন হলে কর্মসংস্থানের সু্যোগ সৃষ্টি হবে এবং মানুষ স্থানীয় উৎপাদিত সামগ্ৰী রপ্তানি করতে পারবেন। এরফলে আশপাশ অঞ্চলের উন্নয়নও ত্বরান্বিত হবে।

রূপসি বিমানবন্দর প্ৰকল্পের ওপর আলোকপাত করে এএআই-র রিজিওনাল এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর ডিকে কামা বলেন,বিমান বন্দরে টার্মিনাল বিল্ডিংটি হবে ৩,৫০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে। পিক আওয়ারে ২৫০ জন যাত্ৰী ধরার ক্ষমতা থাকবে এতে। এছাড়া থাকছে রানওয়ে,ট্যাক্সিওয়ে ও অন্যান্য সু্যোগ সুবিধা। পুরো বিমানবন্দরটি হচ্ছে ৩৩৭ একর জমি ঘিরে। বিমানবন্দরটি ঢেলে সাজাতে ব্যয় হবে আনুমানিক ৬৯.০ কোটি টাকা।

Next Story