Begin typing your search above and press return to search.

লোকসভা ভোটে বিজেপিকে হারাতে বিকল্প পথ খোলা রেখেছে কংগ্ৰেসঃ গগৈ

লোকসভা ভোটে বিজেপিকে হারাতে বিকল্প পথ খোলা রেখেছে কংগ্ৰেসঃ গগৈ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  19 Feb 2019 12:35 PM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে শাসক দল বিজেপিকে হারাতে অসম কংগ্ৰেস অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আঁতাতে যাওয়ার বিকল্প পথ খোলাই রেখেছে। তবে এআইইউডিএফ দলের সঙ্গে কংগ্ৰেস কোনও আঁতাতে যাচ্ছে না বলে দলের তরফ থেকে খোলসা করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্ৰবীণ কংগ্ৰেসি নেতা তথা রাজ্যের প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈ সোমবার বিকেলে এখানে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন,‘গণতন্ত্ৰ ও দেশের ধর্মনিরপেক্ষ চরিত্ৰের ক্ষেত্ৰে বিজেপি একটা বড় হুমকি। তরুণবাবু বলেন,নাগরিকত্ব(সংশোধনী)বিল(ক্যাব)২০১৯ কে আইনি রূপ দিতে বিজেপি একরোখা মনোভাব পোষণ করছে। তাই এই দল স্থানীয় ভূমিপুত্ৰদের কাছেও হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘বিরোধী দলগুলি বাগড়া .দেওয়ায় রাজ্যসভায় ক্যাব পাস করাতে পারেনি তারা। ক্যাবের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংস্থা এবং অসমের মানুষের সম্মিলিত গণতান্ত্ৰিক আন্দোলনের ফলে রাজ্যে এক টালমাটাল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। বিল বিরোধী আন্দোলন তীব্ৰতর হওয়া সত্ত্বেও অসমের মানুষের আবেগ-অনুভূতির প্ৰতি বিন্দুমাত্ৰ শ্ৰদ্ধা দেখায়নি শাসক বিজেপি’। ‘লোকসভা ভোটের পর ক্ষমতায় ফিরলে ফের ‘ক্যাব’ আনা হবে বলে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ সম্প্ৰতি লখিমপুরে যে বিবৃতি দিয়েছেন,তা গেরুয়া দলটির ঔদ্ধত্যের ইঙ্গিত দিচ্ছে। তাছাড়া শাহর ওই বিবৃতি স্থানীয় মানুষকে অবমাননারই শামিল’-বলেন গগৈ। তিনি আরও বলেন,বিজেপি একদিকে বলছে অসমকে বিদেশি মুক্ত করবে। আবার অন্যদিকে ক্যাব এনে বিদেশিদের সংস্থাপন দিতে চাইছে। তাহলে কি করে অসম বিদেশি মুক্ত হবে। নিজেদের ভোট ব্যাংক শক্তিশালী করতেই বিজেপি এমন খেলা খেলছে বলে মন্তব্য করেন গগৈ।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ক্যাব একটা ইস্যু হবে বলে উল্লেখ করে গগৈ বলেন,বিজেপিকে হারাতে এআইইউডিএফ ছাড়া অন্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আঁতাতে যাওয়ার রাস্তা খোলাই রেখেছে কংগ্ৰেস। ভোটের স্বার্থে বিজেপি বিভাজনের রাজনীতি করছে-বলেন গগৈ। এরআগে এই একই সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্য কংগ্ৰেস সভাপতি রিপুন বরাও বক্তব্য রাখেন। ক্যাব আইনে পরিণত না হলে অসম আরও একটা কাশ্মীর হবে বলে ক্যাবিনেট মন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা যে বিবৃতি দিয়েছেন তার বিদ্ৰুপ করেন বরা। ‘অসম কাশ্মীর হয়ে যাবে শর্মার এই ভাবনা একটু বেশি বলেই মনে হচ্ছে। ক্যাব আইনি রূপ নিলে অসম যে আরও একটা ত্ৰিপুরায় পরিণত হবে শর্মা সেদিকে দৃষ্টিই দিচ্ছেন না। ত্ৰিপুরাই এখন ভূমিপুত্ৰরাই সংখ্যালঘুত পরিণত হয়েছে’-বলেন বরা। বিজেপি অসমকে ধ্বংসের পথে ঠেলে দিতে চাইছে। তবে তাদের এই রাজনীতির প্ৰতি সাড়া না দিতে আমরা রাজ্যের জনগণকে আহ্বান জানাচ্ছি-বলেন রিপুন।

Next Story