Begin typing your search above and press return to search.

সাংবাদিকের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন বদরুদ্দিন আজমল

সাংবাদিকের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন বদরুদ্দিন আজমল

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  27 Dec 2018 12:11 PM GMT

এক ডিজিটাল মিডিয়ার সাংবাদিকের প্রশ্ন শুনে এতটাই উত্তেজিত হয়ে গিয়েছিলেন যে, মেরে তাঁর মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন অসমের ধুবড়ির সাংসদ তথা অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্টের (এআইইউডিএফ) প্রধান বদরুদ্দিন আজমল। একই সঙ্গে তিনি ওই সাংবাদিককে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজও করেন। এই ঘটনার পর নিন্দার ঝড় ওঠে দেশ জুড়ে। অগত্যা প্রতিবাদের মুখে পড়ে বৃহস্পতিবার ক্ষমা চাইলেন আজমল।

ঘটনায় প্রকাশ, গত বুধবার অসমের সাম্প্রতিক পঞ্চায়েত নির্বাচনে জয়ী দলীয় প্রার্থীদের সংবর্ধনায় মানকাছারে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল আজমলের দল৷ যথারীতি তিনিও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই এক সংবাদিক তাঁর কাছে জানতে চান, কেন্দ্রের ক্ষমতায় যে দল আসবে, তাকেই কি তিনি সমর্থন করবেন? এমন নিরীহ প্রশ্নের উত্তর প্রচণ্ড উত্তেজিত হয়ে পড়েন আজমল। অন্য এক সাংবাদিকের হাত থেকে মাইক কেড়ে নিয়ে তিনি প্রশ্ন নিক্ষেপকারী সাংবাদিকের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন।এ দিন আজমলের নামে একটি ‘রহস্যজনক’ টুইটার হ্যান্ডেলের পোস্টে লেখা হয়, “মানকাছারে আমার বক্তব্য অনিচ্ছাকৃত এবং আকস্মিক। সংবাদ মাধ্যম গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ। সবাই জানেন, আমি বরবার সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সম্মান করি।আমি এই ঘটনার জন্য আন্তরিক ভাবে দু‌ঃখিত”।এ দিন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরাও কালো ব্যাজ পরে দিসপুর প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন। রাজ্য-সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এ দিন আজমলের বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে পথে নামে বেশ কয়েকটি সাংবাদিক সংগঠন।

Next Story