সীমান্ত এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্ৰণ স্কিমে কেন্দ্ৰের অনুমোদন

সীমান্ত এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্ৰণ স্কিমে কেন্দ্ৰের অনুমোদন

নয়াদিল্লিঃ প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির পৌরোহিত্য অনুষ্ঠিত কেন্দ্ৰীয় মন্ত্ৰিসভা ‘বন্যা ব্যবস্থাপনা এবং সীমান্ত এলাকা কর্মসূচির(এফএমবিএপি)প্ৰতি অনুমোদন জানিয়েছেন। সারা দেশে বন্যা ব্যবস্থাপনার কাজ এবং নদী ব্যবস্থাপনা ও সীমান্ত এলাকা সম্পর্কিত কাজকর্মের জন্য এফএমবিএপি-র প্ৰতি অনুমোদন জানানো হয়। ২০১৭-১৮ এবং ২০১৯-২০ সালের জন্য এই কর্মসূচি বাবদ বরাদ্দ ধার্য হয়েছে ৩৩৪২.০০ কোটি টাকা। পিআইবি-র এক প্ৰেস বিবৃতিতে এখবর জানানো হয়েছে।

বন্যা পরিস্থিতির সক্ৰিয় মোকাবিলা,ভাঙন নিয়ন্ত্ৰণ এবং সমুদ্ৰতটে ভাঙন প্ৰতিরোধে দেশ জুড়ে এই এফএমবিএপি স্কিমটি রূপায়ণ করা হবে। এই প্ৰস্তাব বাস্তবায়িত হলে বিভিন্ন শহর,গ্ৰাম,শিল্প প্ৰতিষ্ঠান,যোগাযোগ সংযোগ,কৃষিক্ষেত্ৰ ও পরিকাঠামো ইত্যাদি বন্যা ও ভাঙনের ছোবল থেকে উপকৃত হবে।

নদীর অববাহিকা অঞ্চলে বিশেষ ব্যবস্থা গ্ৰহণ করা হলে তা নদীর বুকে বালির পলি জমা হ্ৰাস করতে সাহা্য্য করবে।

এই কাজের জন্য তহবিল বরাদ্দের নমুনা নিচে উল্লেখ করা হলো। সাধারণ ক্যাটেগরির রাজ্যগুলির ক্ষেত্ৰে তহবিলের ৫০ শতাংশ কেন্দ্ৰ দেবে এবং বাকি ৫০ শতাংশ রাজ্যকে বহন করতে হবে। এই প্ৰকল্প রূপায়ণে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য,সিকিম,জম্মু ও কাশ্মীর,হিমাচল প্ৰদেশ ও উত্তরাখণ্ডের ক্ষেত্ৰে তহবিল বরাদ্দের ধাঁচ হচ্ছে কেন্দ্ৰ এক্ষেত্ৰে ৭০ শতাংশ দেবে এবং রাজ্যগুলির কাঁধে পড়ছে ৩০ শতাংশ।

logo
Sentinel Assam- Bengali
bengali.sentinelassam.com