Top
Begin typing your search above and press return to search.

১৬টি নবজাতকের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে যোরহাট মেডিক্যালে বিশেষজ্ঞ দল পাঠালো দিশপুর

১৬টি নবজাতকের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে যোরহাট মেডিক্যালে বিশেষজ্ঞ দল পাঠালো দিশপুর

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  10 Nov 2018 12:41 PM GMT

গুয়াহাটিঃ যোরহাট মেডিক্যাল কলেজে গত এক সপ্তাহে ১৬টি নবজাতকের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে দিশপুর শুক্ৰবার একটি পদস্থ মেডিক্যাল টিমকে যোরহাটে পাঠিয়েছে। এই টিমের নেতৃত্বে রয়েছেন মেডিক্যাল এডুকেশনের ডিরেক্টর ড.অনুপ কুমার বর্মন। যোরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৬টি নবজাতকের মৃত্যুর কারণ এবং কি পরিস্থিতিতে শিশুগুলির মৃত্যু হলো তা তাঁরা খতিয়ে দেখবেন। নবজাতকগুলির মৃত্যুর ঘটনায় যোরহাটে ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দেয়। দলটিতে অন্যান্যদের মধ্যে রয়েছেন ইউএনআইসিইএফ-এর বিশেষজ্ঞ শ্ৰীধর এবং গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশুরোগ বিভাগের সিনিয়র ডাক্তার রিতা দাস।

যোরহাট মেডিক্যালে শিশুগুলির জন্ম হয়েছিল গত ১ থেকে ৬ নভেম্বরের মধ্যে। যোরহাট মেডিক্যালের শিশুরোগ বিভাগের একজন চিকিৎসক বলেছেন,কিছু প্ৰসূতি অত্যন্ত দেরি করে অর্থাৎ শিশুভূমিষ্ট হওয়ার কিছুক্ষণ আগে হাসপাতালে এসেছেন। কয়েকটি শিশু আবার অত্যন্ত দুর্বল স্বাস্থ্য নিয়ে জন্মেছে। কিছু শিশু আবার শারীরিক সমস্যা নিয়ে জন্ম নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই মারা গেছে।

ওই চিকিৎসক আরও বলেন,যোরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কর্মীর পর্যাপ্ত অভাব রয়েছে। হাসপাতালে পরিকাঠামোগত সু্যোগ সুবিধার অভাবের কথাও তিনি উল্লেখ করেন। বলেন,শিশু বিভাগে মাত্ৰ ৪০টি শিশু রাখার ব্যবস্থা থাকলেও সেই জায়গায় গত সপ্তাহে ওই ইউনিটে ৮৪টি শিশু রাখার ব্যবস্থা করতে হয়।

‘এদিকে বিশেষজ্ঞ দলটি যোরহাট মেডিক্যালে গিয়ে পৌঁছছে এবং শিশু মৃত্যুর কারণ তারা খতিয়ে দেখবে। শিশু মৃত্যুর জন্য কেউ দোষী প্ৰতিপন্ন হলে তাদের কাউকে ছেড়ে দেওয়া হবে না। কর্তব্যে অবহেলায় কোনও চিকিৎসক বা নার্স দোষী প্ৰমাণিত হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্ৰহণ করা হবে’-স্বাস্থ্য বিভাগের একজন কর্মকর্তা একথা জানান।

Next Story