Begin typing your search above and press return to search.

৩৩ বছরেও ঐতিহাসিক অসম চুক্তির শর্ত রূপায়ণে ব্যর্থ দিল্লি,দিশপুরঃ সমুজ্জল

৩৩ বছরেও ঐতিহাসিক অসম চুক্তির শর্ত রূপায়ণে ব্যর্থ দিল্লি,দিশপুরঃ সমুজ্জল

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  14 Aug 2018 11:33 AM GMT

গুয়াহাটিঃ ঐতিহাসিক অসম চুক্তি স্বাক্ষরের আজ ৩৩ বছর পূর্ণ হলো। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত ৩৩ বছর পরও সরকার চুক্তির মূল শর্তগুলি আজ অবধি রূপায়ণ করেনি। দিশপুর,দিল্লি উভয় সরকারই চুক্তির মূল শর্তগুলি রূপায়ণে ব্যর্থ হওয়ার বিষয় অক্ষমনীয় অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন সারা অসম ছাত্ৰ সংস্থার(আসু)উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল কুমার ভট্টাচার্য। তিনি বলেন,দিল্লি,দিশপুর বাংলাদেশ ঘেঁষা আন্তর্জাতিক সীমান্ত সিল করতে ব্যর্থ হয়েছে। অসমের স্থানীয় মানুষের সাংবিধানিক রক্ষা কবচের ব্যবস্থা করতে পারেনি। এই ৩৩ বছরে একের পর এক সরকার এসেছে আর গেছে,ঐতিহাসিক অসম চুক্তি রূপায়ণে কিছুই করেনি তারা। সরকারের পক্ষে এটা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ-বলেন সমুজ্জ্বল

আসুর সাধারণ সম্পাদক লুরিন জ্যোতি গগৈ বলেন,৩৩ বছরে অসম চুক্তির মূল শর্তগুলির আজ অবধি একটিও রূপায়ণ করা হয়নি। ভোটার তালিকা থেকে বিদেশির নাম ছাঁটা হয়নি। বাংলাদেশ লাগোয়া অসম সীমান্ত সিল করার কাজ আজও বাস্তবায়িত হলো না। বাংলাদেশ ঘেঁষা অসম সীমান্তের ১০০ কিমি চিহ্নিত করার কাজও ঝুলে আছে। চুক্তির ১০ নং শর্ত অনুযায়ী উপজাতি বলয় ও বেল্টগুলি দখলমুক্ত করার কাজও সম্পন্ন করা হয়নি। উল্টে আরও উপজাতি বেল্ট দখলদারদের কবলে গেছে এই ৩৩ বছরে। অশোক কাগজ ফের খোলার শর্ত ছিল চুক্তিতে। কিন্তু একাজও বাস্তবায়িত হলো না আজ অবধি-বলেন গগৈ

উল্লেখ্য,১৯৮৫-র আগস্ট মাস রাতে দিল্লিতে আসুর তদানীন্তন সভাপতি প্ৰফুল্ল কুমার মহন্ত,অসম গণ সংগ্ৰাম পরিষদ,রাজ্য সরকার ও কেন্দ্ৰীয় সরকারের মধ্যে ঐতিহাসিক অসম চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল।

Next Story