সংবাদ শিরোনাম

৬০টি সোনার বার নিয়ে ফেরার পুলিশ আধিকারিক ও সহযোগী

পুলিশ

গুয়াহাটিঃ তল্লাশি অভি্যানে নেমে বাজেয়াপ্ত করা ৬০টি সোনার বার নিয়ে গা ঢাকা দিলেন দিশপুর থানার একজন পুলিশ আধিকারিক ও তাঁর দুই সহযোগী। এই ঘটনা পুলিশ ও প্ৰশাসনিক মহলে প্ৰবল উত্তেজনা ও উৎকণ্ঠার সৃষ্টি করেছে। মণিপুরের একজন ব্যক্তি ঘটনা সংক্ৰান্তে দিশপুর থানায় একটি এফআইআর দাখিল করার পরই বিষয়টি প্ৰকাশ্যে আসে।

দিশপুর পুলিশের গোপন সূত্ৰে জানা গিয়েছে মণিপুরের ওই ব্যক্তিটি এফআইআরে উল্লেখ করেছেন,চলতি বছরের গত ১৫ জানুয়ারি ওই পুলিশ আধিকারিক ও তার সহযোগীরা সন্দেহভাজন চোরাকারবারিদের পিছু তাড়া করেন জোরাবাট থেকে। পুলিশের দলটি নংপোতে গিয়ে সন্দেহভাজন চোরাকারবারিদের ধরে ফেলে। তার পর পুলিশের দল তিনজনের চোরাকারবারি দলের কাছ থেকে কোটি টাকার ৬০টি সোনার বার কেড়ে নিয়ে দলটিকে মাঝ পথে ছেড়ে দেয়। তবে বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয় তার জন্য মুখ বন্ধ রাখতে শাসিয়ে রাখে সন্দেহভাজন চোরাকারবারিদের দলটিকে। এই ঘটনা ওই তিন পুলিশ কর্মী ছাড়া পুলিশ বিভাগের আর কেউ জানতো না। ঘটনাটি ওখানেই চাপা পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু মণিপুরের ওই ব্যক্তিটি সম্প্ৰতি দিশপুর থানায় ৩৯২ আইপিসি ধারার অধীনে ৩৬৩/১৯ নম্বরের একটি এফআইআর দাখিল করার পরই পুরো ঘটনা প্ৰকাশ্য আলোয় চলে আসে।

এফআইআরে উল্লেখ করা হয়েছে,তিন পুলিশ কর্মী গ্যাংটিকে নংপো থেকে গুয়াহাটি নিয়ে আসার পথে তাদের কাছ থেকে ৬০টি সোনার বার ছিনিয়ে নিয়ে তাদের ছেড়ে দিয়েছিল।

সূত্ৰের মতে,এফআইআরে দিশপুর থানার অভিযুক্ত সাব ইন্সপেক্টরের নামও উল্লেখ করা হয়েছে। বর্তমানে তিন পুলিশ কর্মী ফেরার।