Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

সিএএ-র বিরোধিতায় উ.প্ৰদেশে সোশিয়েল মিডিয়ায় ২০ হাজার পোস্ট,ধৃত ১২৫

সিএএ-র বিরোধিতায় উ.প্ৰদেশে সোশিয়েল মিডিয়ায় ২০ হাজার পোস্ট,ধৃত ১২৫

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  28 Dec 2019 1:42 PM GMT

লখনৌঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের(ক্যা)বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ঠেকাতে এবার কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে উত্তর প্ৰদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার। ক্যা-র প্ৰতিবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ চলছে। এই ইস্যুকে কেন্দ্ৰ করে রাজ্যে যাতে কোনওভাবেই হিংসা ছড়াতে না পারে তার জন্য উত্তর প্ৰদেশ পুলিশ তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখছে।

রাজ্যে ক্যা নিয়ে ইতিমধ্যেই ২০৯৫০টি আপত্তিজনক পোস্ট দেওয়া হয়েছে সোশিয়েল মিডিয়ায়। তবে এর বিরুদ্ধে নড়েনড়ে বসেছে পুলিশ। সোশিয়াল মিডিয়ায় এখনও পর্যন্ত ৯৫টি আপত্তিজনক পোস্টের অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া ১০৩৮০ টুইটার পোস্ট,১০৩৩৯টি ফেসবুক পোস্ট ও ১৮১টি ইউটিউব পোস্টকে আপত্তিজনক বলে চিহ্নিত করা গেছে। এই সব পোস্ট নিয়ে পুলিশ ইতিমধ্যে ৪৯৮ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে।

সম্প্ৰতি ক্যা-কে কেন্দ্ৰ করে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় হিংসাত্মক ঘটনার জেরে ৫ হাজারের বেশি বিক্ষোভকারীকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। হিংসাত্মক ঘটনায় জড়িত অভি্যোগে গ্ৰেপ্তার করা হয়েছে ১২৪৬ জনকে। উত্তরপ্ৰদেশ প্ৰশাসনের এই কড়া পদক্ষেপকে সোশিয়াল মিডিয়ায় সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্ৰী যোগী আদিত্যনাথ ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন,সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করলে দোষীদের কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না। বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে উত্তর প্ৰদেশ সরকার যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তাতে অনেকেই অবাক হয়েছেন। রাজ্যের লখনৌ,মিরাট,সম্ভোল,ফিরোজাবাদ ও কানপুরনগর সহ বেশকটি স্থানের জেলা ম্যাজিস্ট্ৰেটরা হিংসাত্মক ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করেছেন। বিভিন্ন জেলা সদর থেকে এ সম্পর্কে রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে। রাজ্যের উপদ্ৰুত কিছু অঞ্চলে এখনও বলবৎ রয়েছে ১৪৪ ধারা। কয়েকটি স্থানে ইন্টারনেট পরিষেবা এখনও বন্ধ রয়েছে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ম্যাঙ্গালোরে নিহতদের পরিবারের হাতে ৫ লক্ষ টাকার আর্থিক সাহায্য তৃণমূলের

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Media interaction held at AGP party office in Guwahati

Next Story