Begin typing your search above and press return to search.

জনবল ও পরিকাঠামোর অভাবে ধুঁকছে গুয়াহাটির থানাগুলি

জনবল ও পরিকাঠামোর অভাবে ধুঁকছে গুয়াহাটির থানাগুলি

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  29 May 2019 7:45 AM GMT

গুয়াহাটিঃ পুলিশ বাহিনীর আধুনিকীকরণ নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে প্ৰায়ই আলোচনা হয়ে থাকে। কিন্তু বাস্তব ক্ষেত্ৰে এটা অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে অধিকাংশ পুলিশ স্টেশন ন্যূনতম সু্যোগ সুবিধার অভাবে ধুঁকছে। জনশক্তি এবং পরিকাঠামোগত সু্যোগ সুবিধার অভাব রাজ্যের ৩৪৬টি পুলিশ স্টেশনের পক্ষে নিষ্ঠাও বিশ্বাসযোগ্যতার সঙ্গে জনগণের সেবায় ব্ৰতী হওয়ার ক্ষেত্ৰে বাধার সৃষ্টি করছে। উদাহরণস্বরূপে বলা যায় যে চাঁদমারি থানার এক্তিয়ারে রাজধানী শহর গুয়াহাটির বিস্তীর্ণ এলাকা রয়েছে। এই থানায় ৬০টি সেংশন পোস্টের বিপরীতে কনস্টেবল রয়েছেন মাত্ৰ ২০ জন।

চাঁদমারির মতো বহু পুলিশ স্টেশন রাজ্যে রয়েছে। জনতাভবন থেকে কয়েক গজ দূরে রয়েছে দিশপুর পুলিশ স্টেশন। এই পুলিশ স্টেশনের পরিকাঠামো ব্যবস্থাও তথৈবচ । দিশপুর থানার অবস্থা এমনটা হলে রাজ্যের অন্যান্য থানার অবস্থা কী হবে তা সহজেই অনুমেয়।

অসম পুলিশে ১২ হাজারের বেশি পদ খালি পড়ে আছে। রাজ্য সরকার কেন এই পদগুলো পূরণ করছে না তা তারাই ভালো বলতে পারবে।

২০১৭ সালের জুলাইয়ে মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল ঘোষণা করেছিলেন রাজ্যের ৩৪৬টি পুলিশ স্টেশনকে নাগরিক বান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার কথা। বলা হয়েছিল এই থানাগুলোতে অভ্যর্থনা,ওয়েটিং লাউঞ্জ,মহিলা ও শিশুদের জন্য পৃথক সেল,ভিডিও কনফারেনসিং,টয়লেট ও পানীয় জলের সুব্যবস্থা ইত্যাদি পরিকাঠামো গড়ে তোলা হবে। কিন্তু বাস্তবে গুয়াহাটির অধিকাংশ পুলিশ থানায় এই সমস্ত সু্যোগ সুবিধা ও পরিকাঠামো আজ অবধি গড়ে ওঠেনি। পর্যাপ্ত জনশক্তি ও পরিকাঠামোগত সু্যোগ সুবিধার অভাবে গুয়াহাটির পুলিশ স্টেশনগুলি আধুনিকীকরণে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Next Story