Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

অসমের অর্থনীতি ইতিবাচক দিশায় এগোচ্ছেঃ অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা

অসমের অর্থনীতি ইতিবাচক দিশায় এগোচ্ছেঃ অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  13 March 2020 11:04 AM GMT

গুয়াহাটিঃ অসমের অর্থমন্ত্ৰী ইতিবাচক দিশায়ই এগোচ্ছে। বৃহস্পতিবার অসম বিধানসভায় ২০২০-২১ সালের বাজেট নিয়ে সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে একথা উল্লেখ করেন অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। গত ৬ মার্চ শর্মা বিধানসভায় চলতি বছরের বাজেট দাখিল করেন। এরপর শনিবার থেকে বাজেট নিয়ে আলোচনায় ২২ জন বিধায়ক অংশ নিয়েছেন।

রাজ্যের অর্থনীতি সম্পর্কে ইতিবাচক সম্ভাবনার ইঙ্গিত দিয়ে মন্ত্ৰী শর্মা বলেন,‘আমরা ব্যাপক সংখ্যক মানুষের ক্ৰয় ক্ষমতা বৃদ্ধি করার চেষ্টা করছি এবং এই উদ্দেশ্যে আমরা ইতিমধ্যেই ডাইরেক্ট বেনিফিট ট্ৰ্যান্সফার(ডিবিটি)প্ৰক্ৰিয়া ন্যস্ত করেছি। এরফলে গ্ৰস স্টেট ডমেস্টিক প্ৰোডাক্টর(জিএসডিপি)-এর ক্ষেত্ৰে উন্নয়নের হার ১২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে রাজ্যের টাকা রাজ্যের মধ্যেই ইনটেক্ট রাখা’।

বাজেটে গরিব মানুষের সাহা্য্যে যে অরুণোদয় প্ৰকল্পের প্ৰস্তাব রাখা হয়েছে সেটা রাজ্য সরকারের একটা মহৎ স্থায়ী পদক্ষেপ। এই প্ৰকল্পের ফলে প্ৰতিজন সুবিধাভোগীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ডিবিটি প্ৰক্ৰিয়ার মাধ্যমে সরাসরি তহবিল ট্ৰ্যান্সফার করা হবে। অরুণোদয় স্কিমের অধীনে মাসে ৮১৪ টাকা করে সংশ্লিষ্ট সুবিধাভোগীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা পড়বে। পুজো এবং ইদের মতো উৎসব এবং বন্যা ইত্যাদির সময় টাকার এই অঙ্ক বৃদ্ধি করা হবে। এই স্কিমটি রাজ্যে অর্থনীতির ক্ষেত্ৰে নিশ্চিতভাবে একটা নতুন ভিত গড়ে তুলবে’। শর্মা আরও বলেন,চলতি বছরে ১ লক্ষ বিধবা ইন্দিরা মিরি পেনশন পাবেন,১০ হাজার দিব্যাঙ্গকে(বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তি)পেনশন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

রাজ্যের রাজস্ব বৃদ্ধির হার সম্পর্কে শর্মা বলেন,২০১২-১৩ সালে রাজ্যের রাজস্ব বৃদ্ধির পরিমাণ ছিল ২ শতাংশ এবং ২০১৪-১৫ সালে তা ১.৩৯ শতাংশে দাঁড়ায়,যা তখন দেশের মধ্যে সর্বনিম্নে ছিল। বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে রাজস্ব বৃদ্ধির হার ৩৫ শতাংশে দাঁড়ায়। ‘২০১১-২০১৬ সাল পর্যন্ত কংগ্ৰেস শাসন আমলে বার্ষিক গড় খরচের পরিমাণ ছিল ৩৬০০০ কোটি টাকা। সেই ক্ষেত্ৰে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের জমানায় গত তিন বছরে বার্ষিক গড় ব্যয়ের পরিমাণ হলো ৬৫,৩২০ কোটি টাকা। চলতি অর্থ বছরে ব্যয়ের অঙ্ক আনুমানিক ৮০০০০ কোটি টাকায় দাঁড়াবে’-বলেন শর্মা।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ‘রাজ্যে ১৫ আগস্ট থেকে বন্ধ হচ্ছে সরকারি টোল ও মাদ্ৰাসা’

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: AASU staged two hour sit-in demonstration against CAA 2019 in Charaideo

Next Story