ইন্টারন্যাশনাল

পাক দলের সমালোচনায় মুখর ফ্যানরা ‘কাল রাতে ওরা বার্গার,পিজ্জা খেয়েছিল’

পাক
Source: Google

গুয়াহাটিঃ ম্যাঞ্চেস্টারে রবিবার চির প্ৰতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিশ্বকাপের এক দিবসীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। ম্যাচে পাকিস্তানের পারফরম্যান্সে রীতিমতো হতাশ হয়েছেন পাক দলের ফ্যানরা। সারা বিশ্ব থেকে পাক দলের সমর্থক-ফ্যানরা রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে সমবেত হয়েছিলেন। ফ্যানরা আশা করেছিলেন সরফরাজ আহমেদের দল ভারতের বিরুদ্ধে শক্ত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেবে। কিন্তু মাঠে পাকিস্তান দলের বেহাল অবস্থা দেখে তাঁরা হতাশ হয়ে পড়েন। খেলোয়াড়দের ফর্মে না থাকা এবং সর্বোপরি ফিটনেসের অভাব দেখে ফ্যানরা রীতিমতো ভেঙে পড়েন। পাকিস্তান ক্ৰিকেট দলের শ্ৰীহীন অবস্থা দেখে ফ্যানদের কেউ কেউ তো কেঁদেই ফেলেন।

ভারতের বিরুদ্ধে জয়ের জন্য ৩৩৭ রানের পিছু তাড়া করে পাক দল ব্যাট করতে নামে। কিন্তু ৬ উইকেটে ২১২ রান করে ইনিংস গুটিয়ে নিতে হয় পাকিস্তানকে। রোহিত শর্মার মতো ভারতীয় ব্যাটসম্যান যখন সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন এবং কুলদীপ যাদবের স্পিন যখন বিস্ময় সৃষ্টি করেছে সেই সময় পাকিস্তান সামান্য স্কোর করে এভাবে গুটিয়ে যাবে,পাক ফ্যানরা তা আশা করেননি।

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচ ৪০ ওভারে হ্ৰাস করা হয় এবং পাকিস্তানকে ৪০ ওভারে জয়ের জন্য সংশোধিত টার্গেট বেঁধে দেওয়া হয় ৩০২। খেলার শেষ অবধি ইমাদ ওয়াসিম(৪৬)এবং সাদাব খান ২০ রানে অপরাজিত থেকে যান।

পাক ফ্যানরা হতাশ হয়ে চিৎকার করে বলতে থাকেন ‘কল রাত এলোক বার্গার,পিজ্জা খা রহে থে’-তারা এও বলেন,পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের মধ্যে ফিটনেস-এর অভাব স্পষ্ট বোঝা গিয়েছে। যার দরুন তারা ভারতের সঙ্গে পাল্লাই দিতে পারেনি। আগের বার বিশ্বকাপেও ভারতের কাছে হার স্বীকার করতে হয়েছিল পাকিস্তানকে। সেবারও পাক দলের ফ্যানদের হতাশ হতে হয়েছিল। ফেরারিট দলের সমালোচনায় মুখর হয়েছিলেন তারা। ফ্যানদের কেউ কেউ আবার এমন বিষোদ্গার করেছেন যে সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দল কি ঘুমের বড়ি খেয়েছিল,যার দরুন একটা হাই ভল্টেজ ম্যাচে তাদের এভাবে ধুঁকতে হয়েছে।

অন্যদিকে,ভারতীয় খেলোয়াড়রা মাঠে চটকদার পারফরম্যান্স করেছেন। প্ৰত্যেক ভারতীয় খেলোয়াড় নিজের সেরাটাকেই উজাড় করে দিয়েছেন। ব্যাটিং-বোলিং উভয় ক্ষেত্ৰেই ভারতীয় খেলোয়াড়রা দেখিয়েছেন কামাল।

রবিবার এই ম্যাচে কিছু নতুন রেকর্ডও সৃষ্টি হয়েছে। ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি তো ২২১টি ওডিআই খেলে ১১ হাজার ক্লাবে নাম লিখিয়ে বিশ্বের দ্ৰুততম ব্যাটসম্যানের যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

বিশ্বকাপে ভারত এই নিয়ে পাকিস্তানকে ৭-০ বার পরাজিত করল। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রোহিত শর্মা ও কেএল রাহুল ওপেনিং জুটির ১৩৬ রান এপর্যন্ত সেরা স্কোর।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ পাকিস্তান সন্ত্ৰাসের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিক,জিন পিঙকে বললেন মোদি